Sufi Faruq Ibne Abubakar (সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর)

পেশা পরামর্শ সভা | পেশা পরিচিতি | উন্নত চুলা তৈরি পেশা পরামর্শ, পেশা পরিচিতি

সুফি ফারুক এর পেশা পরামর্শ সভা, পেশা পরিচিতি, উন্নত চুলা তৈরি, কুমারখালী খোকসা, কুষ্টিয়া | Sufi Faruq's Career Counselling for Rural Youth, Making Improved Stove, Kumarkhali, Khoksa, Kushtia

গ্রামের বাড়িতে রান্নার কাজে বর্তমানে উন্নত চুলার ব্যবহার বাড়ছে। বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে উন্নত চুলা তৈরি করে দিয়ে এ থেকে আয় করা সম্ভব। সাধারণ চুলায় ধোঁয়া এবং কাঠের অপচয় বেশি হয়। অন্যদিকে উন্নত চুলায় অল্প কাঠে বেশি রান্না সম্ভব এবং ধোঁয়াও অনেক কম হয়। সাধারণ চুলার চেয়ে এ চুলায় ৫০-৭০ শতাংশ জ্বালানি খরচ কম হয়। বিভিন্ন দিক দিয়ে সুবিধার কারণে উন্নত চুলার ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। লিখেছেন – শামস্ বিশ্বাস

বাজার সম্ভাবনা :
জ্বালানি কম লাগে বিধায় মফস্বল শহর ও গ্রামের মানুষ এ চুলার ভোক্তা। উন্নত চুলায় কম খরচে রান্না করা সম্ভব এবং একই সঙ্গে পরিবেশ ও রাঁধুনির স্বাস্থ্য ভালো থাকে। উন্নত চুলায় রান্নার ফলে গোবর ও ফসলের খড়ের ব্যবহার কমে, যা দিয়ে প্রচুর জৈব পরিমাণ সার তৈরি করা যেতে পারে। বর্তমানে গ্রামের অধিকাংশ মানুষ উন্নত চুলা ব্যবহারে আগ্রহী হচ্ছে। তবে অনেকেই নিজেরা এ চুলা তৈরি করতে পারে না। সে ক্ষেত্রে বাড়ি বাড়ি গিয়ে উন্নত চুলা তৈরি করে দিয়ে এ থেকে বাড়তি আয় করা সম্ভব।

মূলধন :
আনুমানিক ১ হাজার থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা মূলধন নিয়ে উন্নত চুলা তৈরি ব্যবসা শুরু করা সম্ভব।

যোগ্যতা :
বিশেষ যোগ্যতার প্রয়োজন নেই।

প্রশিক্ষণ :
দুদিন প্রশিক্ষণ নিয়েই চুলা তৈরি করা যায়। উন্নত চুলা তৈরি প্রশিক্ষণের জন্য জ্বালানি গবেষণা ও উন্নয়ন ইন্সটিটিউট, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (সায়েন্স ল্যাবরেটরি) ড. কুদরত-ই-খোদা রোড, ঢাকা-১২০৫-এ ঠিকানায় যোগাযোগ করা যেতে পারে। এ ছাড়া স্থানীয় পর্যায়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান (এনজিও) থেকেও এ চুলা তৈরির প্রশিক্ষণ নেওয়া সম্ভব।

প্রস্তুত প্রণালি :
প্রথমে এঁটেল মাটি, তুষ ও পানি দিয়ে মণ্ড তৈরি করতে হবে। চুলার আকার ঠিক করে দুভাগে ভাগ করে নিন। কাদা দিয়ে একটি অংশে ভিটি তৈরি করুন। ভিটির মাঝে ফাঁকা রাখতে হবে। এটি হচ্ছে মুখ্য চুলা। এবার মুখ্য চুলার পাশে গৌণ চুলা তৈরি করুন, এটির গর্ত প্রথমটির চেয়ে ছোট হবে। এর ওপর মাটির প্রলেপ দিয়ে চুলার আকৃতি দিন। দুই গর্তের মাঝে একটি নালা দিন, যেন মুখ্য চুলা থেকে গৌণ চুলায় আগুন যেতে পারে। গৌণ চুলার ভিটির ওপর সিমেন্টের পাইপ বসিয়ে দিন, যা রান্নাঘরের চালা দিয়ে ধোঁয়া বাইরে বের করে দেবে। এই পাইপের মুখে একটি টুপি লাগিয়ে দিন।

আয় ও লাভ :
বাড়ি বাড়ি গিয়ে উন্নত চুলা তৈরি করে এ থেকে আয় করা সম্ভব। স্থায়ী উপকরণগুলো একবার কিনলে অনেক দিন ধরে কাজ করা যাবে। ব্যবসার শুরুতেই এ খরচটি করতে পারলে পরবর্তীতে শুধু কাঁচামাল কিনে ব্যবসা চালিয়ে নেওয়া সম্ভব। যে কোনো ব্যক্তি অল্প পুঁজিতে এ ব্যবসা করে লাভবান হতে পারেন।

এই লেখাটি “উন্নত চুলা তৈরি” এই শিরোনামে দৈনিক আমাদের সময়ের ক্যারিয়ার সময় পাতায় ২৫ অক্টোবর ২০১৭ তারিখে প্রকাশিত হয়েছে।