অভিনেত্রী সুষমা সরকার [ Sushoma Sarkar ] এর হাতে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী তুলে দেয়া হল

অভিনেত্রী সুষমা সরকার [ Sushoma Sarkar ] এর হাতে প্রোগ্রামের পক্ষ থেকে কপিটি তুলে দিয়েছেন ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম-এর বোর্ড সদস্য মুনা চৌধুরী। ‘পড় মুজিব’ প্রোগ্রামের আওতায়, ‘ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম’এর উদ্যোগে, এবার সাংস্কৃতিক অঙ্গনের শিল্পীদের হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী।

‘পড় মুজিব’ প্রোগ্রামটির উদ্দেশ্য আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ, দর্শনের সাথে নতুন প্রজন্মকে পরিচিত করা। সেই উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও কারাগারের রোজনামচার পাঠ চক্র পরিচালনা হয়। পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের বঙ্গবন্ধুর ছেলেবেলার সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ অবলম্বনে তৈরি মুজিব গ্রাফিক নভেল বিভিন্ন স্কুল ও মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

এই আয়োজনটি শুরু হয়েছিল কুষ্টিয়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায়। শুরু করার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে সারা দেশে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে। এখন দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও প্রত্যন্ত গ্রামের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একই ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন হচ্ছে।

অভিনেত্রী সুষমা সরকার [ Sushoma Sarkar ] এর হাতে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী তুলে দেয়া হল
অভিনেত্রী সুষমা সরকার [ Sushoma Sarkar ]
অভিনেত্রী সুসমা সরকার বলেন, আমাদের চেতনায় বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করার ক্ষেত্রে এ ধরণের উদ্যোগ সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দেয়া উচিত। শিল্পাঙ্গনের ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের এই উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। বর্তমান প্রজন্মের আমরা অনেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে অনেক কিছুই জানিনা। তাঁর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটি বর্তমান প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জানতে অনেক সাহায্য করবে বলে আমি মনে করি। বইটি হাতে পেয়ে আমি আনন্দিত। আমি বইটি ভালোভাবে পড়বো। তাঁর এ ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনেক কিছুই জানতে পারবো। আর এমন একটি উদ্যোগ হাতে নেয়ার জন্য বাংলাদেশ ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভাপতি সুফি ফারুক ও ফোরামের সকল সদস্যদের ধন্যবাদ জানাই।

এদিকে বইটি হাতে দেয়ার পর ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের বোর্ড সদস্য মুনা চৌধুরী বলেন, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভাপতি সুফি ফারুক ইবনে আবু বকরের এমন একটি উদ্যোগের অংশ হতে পেরে আমি গর্ব অনুভব করি। আমাদের পূর্বপুরুষরা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলো। এখন আমাদের সময় এসেছে সেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করার। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই অনেক কিছুই জানেন না। তাই ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম বর্তমান সময়ের সকল শিল্পীদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের সেই প্রেরণা ছড়িয়ে দিতে বদ্ধপরিকর।

পড় মুজিব কর্মসূচি সম্পর্কে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভাপতি সুফি ফারুক ইবনে আবু বকর জানান, পড় মুজিব কর্মসূচি মূলতঃ মফস্বলের শিশু-কিশোরসহ সারা দেশের মানুষের কাছে বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ তুলে ধরা। যাতে করে বর্তমান প্রজন্মের শিশু কিশোররা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছেলেবেলা সম্পর্কে জানতে পারে। শুধু শিশু কিশোর নয় বর্তমান প্রজন্মের সকলেরই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ সম্পর্কে জানা প্রয়োজন বলে আমি মনে করি। তাই এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। ‘টিম সুফি ফারুক’ এ কর্মসূচিকে সফল করতে নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

#সুসমাসরকার #মুনাচৌধুরী #পড়মুজিব #জয়বাংলা #জয়বঙ্গবন্ধু #YBCF

[ অভিনেত্রী সুষমা সরকার [ Sushoma Sarkar ] এর হাতে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী তুলে দেয়া হল ]

আরও পড়ুন: