Sufi Faruq Ibne Abubakar (সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর)

তথ্য প্রযুক্তি ট্রেড বডি- বেসিস (BASIS) এর নির্বাচন ও কিছু পুরানো প্রশ্ন আর্টিকেল ওপিনিয়ন, উদ্যোক্তা উন্নয়ন, প্রেস, সংগঠন

বেসিস (BASIS) এর নির্বাচন নিয়ে অনেক হৈচৈ। প্রার্থীরা সবাই নিজের নিজের ক্যাম্পেইন করছেন। ভোটারদের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। অন্যান্য ট্রেড বডির নির্বাচনের আগের মতই প্রার্থী-ভোটার আবহাওয়া। নতুন অনেক মুখও দেখছি। নির্বাচন বিষয়টিতে আমি সবসময় উত্তেজিত হই (আমার সাথে ওই নির্বাচনের সম্পর্ক থাকুক আর নাই থাকুক)। নিজের কোন দায় দায়িত্ব না থাকলে তো কথাই নেই, তখন নির্বাচন রীতিমত মজার উৎসব। আমার মনোযোগের অন্যতম প্রধান যায়গা – পরান ও নতুন নির্বাচনী ইশতেহার। এই নির্বাচন উপলক্ষে কোন প্রার্থীর গোছানো ইশতেহার এখনও পেলাম না। সবসময় আলোচিত প্রশ্নগুলো মাথায় ঘুরছিল। তারই কিছু প্রশ্নের একটি তালিকা করলাম। ইশতেহারে পরিষ্কার না হলে এবারের নির্বাচনে ভোট প্রার্থীদের কাছে এই যে প্রশ্নগুলো করা যেতে পারে: –

১. সফটওয়ার ও আইটি এনাবল্ড সার্ভিসেস ব্যবসার সম্প্রসারণে দেশের-বিদেশের আইটি ইন্ডাস্ট্রির নির্ভরযোগ্য পরিসংখ্যান দরকার। এগুলো তৈরি, সংগ্রহ ও সরবরাহের দায়িত্ব কার? প্রার্থী যদি মনে করেন ট্রেড বডি হিসেবে সেটি বেসিস (BASIS) এর করার কথা, তবে তিনি নির্বাচিত হলে কিভাবে তা নিশ্চিত করতে চান?

২. এ খাতের উন্নয়নের জন্য পর্যাপ্ত পেশাদারি জনশক্তি দরকার। সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা/প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান গতানুগতিক উপায়ে প্রয়োজন অনুযায়ী জনশক্তি তৈরি ও সরবরাহ করতে পারছে না। তাই ইন্ডাস্ট্রিকে বাঁচাবার স্বার্থে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা/প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানকে নতুন ধরনের দিক নির্দেশনা দিয়ে ইন্ডাস্ট্রির সাথে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে পর্যাপ্ত পেশাজীবী জনশক্তি তৈরি নিশ্চিত করা দরকার। সেই সাথে জনশক্তির তথ্য ভাণ্ডার তৈরি ও হালনাগাদ প্রয়োজন। প্রার্থী যদি মনে করেন ট্রেড বডি হিসেবে সেটি বেসিস (BASIS) এর করার কথা, তবে তিনি নির্বাচিত হলে এ বিষয়ে কি করবেন?

৩. এ খাতের সম্প্রসারণে নিয়মিত দেশি বিদেশি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও ট্রেড বডির সাথে মেলামেশার সুযোগ তৈরি দরকার (দুবার প্রদর্শনী বা এক-দুটো সেমিনার যথেষ্ট নয়)। সেই কাজটি করতে তার কি পরিকল্পনা?

৪. এ খাতের সম্প্রসারণে এই ধরনের পেশাতে আসতে তরুণ/তরুণীদের উৎসাহিত করতে তার কি পরিকল্পনা?

৫. দেশের অসংখ্য আউটসোর্সিং উদ্যোগগুলোর প্রাতিষ্ঠানিক আকার দেয়া ও তার সম্প্রসারণের জন্য তার কি পরিকল্পনা?

৬. তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি নীতিমালা বা আইনে কি কি পরিবর্তন আনা দরকার বলে তিনি মনে করেন? সেসকল পরিবর্তন আনতে বেসিস (BASIS) এর পক্ষ থেকে জোরদার তদবিরের বিষয়ে তিনি কি করতে চান ? এছাড়া সম্পৃক্ত নীতিমালা/আইন (যেমন: আইপিআর ইত্যাদি) যুগোপযোগী করার বিষয়ে তার পরিকল্পনা কি?

৭. বহুবছর ধরে সরকারি ইনকিউবেটরে থাকা পোলিও রোগে আক্রান্ত কোম্পানিগুলোর বিষয়ে তাদের পরিকল্পনা কি? নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারি/বেসরকারি পর্যায়ে “দেশের বিভিন্ন স্থানে হাইটেক পার্ক, সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক, আইসিটি ইনকুবেটর এবং কম্পিউটার ভিলেজ” স্থাপন ও সম্প্রসারণ এবং যোগ্য প্রার্থীদের যায়গা করে দেবার ব্যাপারে তার পরিকল্পনা কি?

৮. এ খাতে নতুন উদ্যোক্তা তৈরির জন্য অনেকগুলো – সিড ফান্ড, ভেজ্ঞার ক্যাপিটাল উদ্যোগ প্রয়োজন। সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে এধরনের উদ্যোগের বিষয়ে তার পরিকল্পনা কি?

৯. এই ইন্ডাস্ট্রিতে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য সরকারের ন্যূনতম ১০ বছরের নির্দিষ্ট ট্যাক্স কমিটমেন্ট ছাড়া কিছু নীতিমালার সুবিধা দরকার। এই বিষয়ে তার কি পরিকল্পনা?

১০. সফটওয়ার রপ্তানিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে (বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের) একটি বড় অংশ বেসিস (BASIS) বিমুখ (শুধুমাত্র ভোটের সময় কারও অনুরোধে ভোট দিতে আসেন)। এদেরকে বেসিস (BASIS) এর কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত করার ব্যাপারে তার কি পরিকল্পনা?

১১. রপ্তানি, জনশক্তি তৈরি, উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তৈরি, বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানো, ইত্যাদি বিষয়ে বেসিস (BASIS) এর পারফরমেন্স মাপার জন্য “কি পারফরমেন্স ইন্ডিকেটর” তৈরি ও মনিটর করা দরকার। এই বিষয়ে তার কি পরিকল্পনা?

১২. এ খাতের অভাব/অভিযোগ নিয়ে প্রতি বছর বাজেটের সময় নির্দিষ্ট ও সুস্পষ্ট বক্তব্য সম্বলিত প্রস্তাব পেশ করা দরকার। সে প্রস্তাব তৈরির জন্য সদস্যদের নিয়ে আলোচনা করা দরকার। এই বিষয়ে তার পরিকল্পনা কি?

১৩. প্রতিটি বিষয়ে ২৪ ভাগে (অন্তত ৮ ভাগে) বিভক্ত একটি টাইমলাইন ও লিখিত নির্বাচনী ইশতেহারে থাকলে কেমন হয়?

১৪. মুক্ত সফটওয়ার নিয়ে তার ভাবনা কি?

মোস্তফা জব্বার ভাই যোগ করেছেন:
১. স্বাক্ষর জ্বাল করে ৪৩টি চেকের মাধ্যমে বেসিস এর তহবিলের বিশ লাখের বেশি টাকা মেরে দেয়া হয়েছে। এই টাকাগুলো বেসিস এর সদস্যদের টাকা। এর তহবিলের টাকাটা যারা মেরেছিলেন তাদের বিষয়ে আপনি কি করতে চান?

মুনির হাসান ভাই যোগ করেছেন:
১. বেসিসের নেতাদের একটা লক্ষ্য হল ইইএফ ফান্ড নেওয়া ও ফেরৎ না দেওয়া । এর মধ্যে রয়েছেন সারায়ার ভাই থেকে শুরু করে হালের সাব্বির মাহবুবও আছেন বলে শুনেছি। কাজে প্রশ্ন হবে – আপনি ইইএফ ফান্ড থেকে কত টাকা নেবেন?

২. আর একটি কাজ হল ইনকিউবেটরের জায়গা দখল করা – যেমন আইপাহোলিকের নামে বা জানালার নামে এবারের দখল প্রক্রিয়া। প্রশ্ন হবে – নির্বাচিত হলে আপনি ইনকিউবেটর বা জনতা টাওয়ারে কতো জায়গা দখল করবেন?



আপনার মন্তব্য দিন