Sufi Faruq Ibne Abubakar (সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর)

আর্কাইভ

আমরা তো মানুষ নই-গো বাবু নোট

আমরা তো মানুষ নই-গো বাবু আমরা হলাম তেলা টাকি আমদের পোনা কেউ পালে না হ্যাচারি থেকে কেনে না আমরা এমনি জন্মাই, এমনি মরে যাই। খোকা মারে বড়শি দিয়ে মুনিষ মারে জালে শেলো দিয়ে সেঁচে মারেন পুকুর কাটার কালে অভিশাপ এই মানুষের মত চেহারাটা আমরা মরলে মানুষ আসে দলে দলে বোকার মত কাঁদে রাস্তায় দাড়ায়. প্রতিবাদ

বিস্তারিত

আামরও মন চায় … নোট

আমারও খুব জনপ্রিয় হতে মন চায়। শুধু কাজ নিয়ে থাকতে মন চায়। সবার সাথে একমত হতে মন চায়। কোন বিরোধে না যেতে মন চায়। স্মার্ট হতে মন চায়। লিবারেল হতে মন চায়। প্রগ্রেসিভ হতে মন চায়। সবাইকে ক্ষমা-সুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে মন চায়। দেশের সব ইস্যুর সমাধান চাইতে মন চায়। তবে এই সবকিছুর আগে – –

বিস্তারিত

জালাল ভাই … নোট

Cinema Paradiso -র আলফ্রেডোর চরিত্র যতবার সামনে আসে, জালাল ভাইকে মনে পড়ে। আমর ছোট বেলায় মনে হত – জালাল সবই পারে। লাঠি খেলা শেষে, আমাকে কাঁধে নিয়ে পাঁচ কিলোমিটার রাস্তা হেঁটে ঘরে ফেরা। আমার জন্য ডুব দিয়ে শামুখ তুলে আনা। পাখির বাসা সহ বাচ্চা পেড়ে আনা। মায়ের নিষেধ থাকা সত্বেও গোপনে ন্যায়/অন্যায় সব আব্দার মেটানো।

বিস্তারিত

আহা, সে এক রঙ্গিন গল্প নোট

আহা, সে এক রঙ্গিন গল্প এতদিন পরে, আজও মনে পড়ে অল্প অল্প পুজোর ঢোল শুনে কি আর তেমন মন নাচে? তেমনি মেলা, তেমনি মানুষ, এখন কি আর আছে?

বাংলাদেশে জরুরী অবস্থা দিনপঞ্জি, নোট

বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়নের সময় জরুরী অবস্থা ঘোষণার কোন সুযোগ রাখা হয়নি। সংবিধান প্রণেতারা আশা করেছিলেন যে এই প্রজাতন্ত্রে কখনও এমন সময় আসবে না যখন জরুরী অবস্থা ঘোষণা করার প্রয়োজন পড়বে। দুর্ভাগ্যজনক ভাবে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ১৯৭৩ সালে সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনীর মাধ্যমে জরুরী অবস্থা ঘোষণার সুযোগ সহযোজন করার প্রয়োজন হয়। সংবিধান নতুন একটি ভাগ

বিস্তারিত

সাংবাদিকতা – নাগরিক সাংবাদিকতা আর্টিকেল ওপিনিয়ন, নোট

ছোট বেলা থেকে ছোট খাট পত্রিকা বের করছি। লিখেছি যতটা তারচেয়ে বেশি আয়োজন করেছি। একসময় পারিবারিক দৈনিক কাগজ সম্পাদনার দায়িত্বে ছিলাম। ইন্টারনেটের প্রসারের সাথে ক্রমশ আগ্রহী হয়েছি – সিটিজেন জার্নালিজম, কমিউনিটি জার্নালিজম ও সোশ্যাল জার্নালিজম টার্মগুলোতে। সেই কাজের ভাল মন্দ নিয়ে এই থ্রেড।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: চ্যাপা-শুঁটকি আর্টিকেল ওপিনিয়ন, উদ্যোক্তা উন্নয়ন, নোট

লালপুরের চ্যাপার সাথে চিন-পরিচয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ উপজেলায় মেঘনা নদীর পূর্ব পাশে অবসি’ত লালপুর গ্রাম; নদী লাগোয়া এলাকা চর-লালপুর গ্রাম নামেও পরিচিত বটে। ছয় বর্গকিলোমিটার এলাকা আয়তনের লালপুর গ্রামের বাজারটি অবসি’ত মেঘনা নদীর কূল ঘেঁষে। লালপুর বাজার ও তার আশপাশের বিশাল এলাকা জুড়ে গড়ে উঠেছে চ্যাপা-শুঁটকি প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকা। গত প্রায় ১০০ বছর ধরে এলাকায় চলছে

বিস্তারিত

কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট এর ৩৩ ইনফ্যান্ট্রি ডিভিশনের প্রজেক্ট দিনপঞ্জি, নোট, বিজ্ঞান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট এর ৩৩ ইনফ্যান্ট্রি ডিভিশনের প্রজেক্ট