Sufi Faruq (সুফি ফারুক)

কি করতে চাই?

  • জনশক্তি উন্নয়ন : কুমারখালী-খোকসায় একটি সুশিক্ষিত, দক্ষ, কর্মঠ, রুচিশীল ও মানবিক প্রজন্ম গড়ে তুলতে চাই। কুমারখালী খোকসার প্রতিজন তরুণ প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় শিক্ষিত হবে, যেকোনো একটি কাজে দক্ষ হবে, তাদের মধ্যে যোগ্যতা ও দক্ষতা অনুযায়ী কাজ করার কর্ম স্পৃহা ও উদ্দীপনা থাকবে, তারা রুচিশীল হবে এবং মানবিক হবে।
  • জনগণের দোরগোড়ায় সরকারি পরিসেবা: প্রযুক্তির মাধ্যমে সকল পরিসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে চাই। জনগণের প্রত্যাশা, চাহিদা ও অভিযোগ জানানোর সুবিধা তাদের হাতের নাগালে থাকবে। এসব বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত হচ্ছে তা তারা পরিষ্কার ভাবে জানতে পারবে। তাদেরকে সেবা সময়মত না দিলে জনপ্রতিনিধিদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে।
  • সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও দক্ষতা নির্ভর কৃষি: কুমারখালী-খোকসার কৃষিকে সর্বাধিক প্রযুক্তি নির্ভর কৃষিতে পরিণত করতে চাই। কৃষকরা হবেন সর্বশেষ কৃষি প্রযুক্তি ও কর্মকৌশল বিষয়ে প্রশিক্ষিত। বাংলাদেশের অনন্য কৃষি ভূমির তুলনায় সর্বাধিক উৎপাদন নিশ্চিত হবে, কৃষি একটি লাভজনক পেশা হিসেবে স্বীকৃত হবে, লেখাপড়া শিখেও তরুণরা কৃষিকাজ করতে আগ্রহী হবে। কৃষি পণ্যের সংরক্ষণের সর্বাধুনিক ব্যবস্থা থাকবে। সঠিক দাম নিশ্চিত করার জন্য অফলাইন ও অনলাইনে সর্বাধুনিক বাজার (মার্কেট-প্লেস থাকবে)।
  • জনস্বাস্থ্য: কুমারখালী-খোকসার জনগণের স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা উন্নয়ন করে স্বাস্থ্য গঠনকে একটি সংস্কৃতিতে পরিণত করতে চাই।  যেসব রোগ সচেতনতার মাধ্যমে প্রতিরোধ-যোগ্য ও নিরাময় যোগ্য, সেসব রোগ ক্রমশ সমাজ থেকে বিদায় করতে চাই। পাশাপাশি স্বাস্থ্য সেবা দেয়াতে সামাজিক প্রতিষ্ঠান ও স্বেচ্ছাশ্রমকে প্রণোদনা দিয়ে কমিটমেন্টের মধ্যে আনতে চাই। সরকারি স্বাস্থ্য সেবাসমুহ সঠিক ভাবে পাওয়া নিশ্চিত করতে চাই। বেসরকারি খাতে স্বাস্থ্য সেবার নামে অনৈতিক বাণিজ্য বন্ধ করতে চাই।
  • ব্যবসা বাণিজ্য ও শিল্প উন্নয়ন: কুমারখালী-খোকসার ভৌগোলিক ও জনশক্তি নির্ভর আর্থিক সম্ভাবনাকে পূর্ণ ভাবে কাজে লাগাতে চাই। পাশাপাশি জনগণকে সংগঠিত করে এমন একটি শিল্প বিনিয়োগ-বান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে চাই যাতে দেশের স্বনামধন্য ও বিদেশি বিনিয়োগকারীরা কুমারখালী-খোকসায় শিল্প কারখানা ও বাজার গড়ে তুলতে আগ্রহী হবেন।
  • সঠিক ধর্মীও শিক্ষা নিশ্চিতকরণ:
  • মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদ মুক্ত বহুত্ববাদী সমাজ প্রতিষ্ঠা:
  • সুশাসন, ন্যায়বিচার ও আইনি সহায়তা:
  • দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ঝুঁকি প্রশমন :