Sufi Faruq (সুফি ফারুক)

আর্কাইভঃ ভাষণ

বঙ্গবন্ধুর সকল বক্তৃতার একটি অনলাইন সংগ্রহশালার (প্রি আলফা রিলিজ) নোট

Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman | বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

ইতিহাসের সবচেয়ে আকর্ষণীয় যায়গাগুলো হলো – বদলে যাবার সময়। একটি জনগোষ্ঠীর, জাতির বা মানচিত্রের । সে বদল কখনও করেছে প্রকৃতি। কখনো মানুষ নিজে হাতে। মানুষের বদলানোর মুল কারন ছিলো রাজনৈতিক। সেসব – কারন, প্রস্তুতি, সময়, ফলাফল – জানা/বোঝার জন্যই – আমরা ইতিহাসের পাতা হাতড়ে ফিরি। সেসব ঝড়ো সময়ের – পরিস্থিতি, দর্শন, নীতি, আদর্শ, ঘটনা, পতি-ক্রিয়া

বিস্তারিত

স্বাধীন বাংলাদেশ – বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman

অনেক দিন ধরেই আমরা বাংলাদেশের স্বায়ত্বশাসন দাবি করে আসছি। কিন্তু আমাদের কোন কথাতেই পশ্চিম পাকিস্তানীরা কান দেওয়া প্রয়োজন মনে করেননি। চিরকাল চেষ্টা করেছে আমাদের দাবিয়ে রাখতে। ফলে সাড়ে সাত কোটি বাঙ্গালীকে শোষণ করে পশ্চিম পাকিস্তানআজ সমৃদ্ধ, আর আমরা ভিখারী। গত নির্বাচনে আমরা দল প্রাদেশিক আইন সভায় নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাখ করেছে। জাতীয় পরিষদেও আমরা একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা

বিস্তারিত

স্বাধিকার আদায়ের জন্য প্রস্তুত হবার আহবান – বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman

বাংলার স্বাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবী নস্যাৎ করে দেওয়ার জন্য শক্তি প্রয়োগ করা হলে তা বরদাস্ত করা হবে না। প্রয়োজনে বাঙ্গালী আরো রক্ত দেবে, জীবন দেবে, কিন্তু স্বাধিকারের দাবীর প্রশ্নে কোন আপস করবে না। বাংলার মানুষ যাতে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অধিকার নিয়ে বাঁচতে পারে, বরকত-সালাম-রফিক-শফিকরা নিজেদের জীবন দিয়ে সেই পথ দেখিয়ে গেছেন। বাহান্ন সালের রক্তদানের পর

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ১লা মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

পহেলা মার্চ হঠাৎ ঘোষণা হলো জাতীয় পরিষদের অধিবেশন অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল। তারপরই বাংলাদেশের মানুষের সামনে উচিয়ে ধরা হলো মিলিটারির বন্দুক। নিরস্ত্র মানুষ, মজুর, শ্রমিক এবং ছাত্র ভাইয়েরা এই ঘোষণার প্রতিবাদ জানিয়েছিল, নির্বিচারে গুলি চালানো হয়েছে তাদের উপর। গত সপ্তাহে যারা মারা গেছে তারা সব অমর শহীদ। গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার জন্য তারা প্রাণ দিয়েছে। এই শহীদদের

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি বাংলা একাডেমীতে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

[১৯১৭ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গণে আয়োজিত ভাষা আন্দোলনের স্মরণ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। একাডেমীর সভাপতি সৈয়দ মুর্তাজা আলী সভায় সভাপতিত্ব করেন। স্বাগত ভাষণ দেন একাডেমীর পরিচালক প্রফেসর কবীর চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের অংশবিশেষ উদ্ধৃত হলো।] রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি নয়, মূলত শুরু হয়েছিল

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউটে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

[১৫ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭১ শেখ মুজিবুর রহমান ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউটে আওয়ামী লীগ দলীয় জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্যদের দু’দিনব্যাপী এক যৌথ অধিবেশনের উদ্বোধন করেন। নির্বাচনের পর এমএনএ এবং এমপিএ দের এটাই প্রথম আনুষ্ঠানিক বৈঠক। ঢাকায় পাকিস্তানআওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির এক বৈঠকও আগের দিন অনুষ্ঠিত হয়। দলীয় প্রধান তাঁর ভাষণে নবনির্বাচিত সদস্যদের জনগণের প্রতি তাঁদের দায়িত্বের

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকার মৌলভী বাজারে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

[লাহোরে ভারতীয় বিান বোমা মেরে ধ্বংস করার জের হিসেবে ভারত ৩ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় আকাশ-সীমার ওপর দিয়ে পাকিস্তানী সামরিক বিমানের চলাচল নিষিদ্ধ করে। এ নিষেধাজ্ঞা সামরিক-বেসামরিক সব ধরনের পাকিস্তানী বিমানের জন্যে প্রযোজ্য হয়। পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যে পাকিস্তানী বিমান চলাচল শুরু হয় কলম্বো হয়ে। মৌলভী বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১ মৌলভীবাজারে

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধুর সংবাদপত্রে দেয়া বিবৃতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

[তথাকথিত কাশ্মীরী মুক্তিযোদ্ধা কোরেশী হাসিম এবং আশরাফ কোরেশী ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্সের শ্রীনগর থেকে নয়াদিল্লীগামী একটি ফকার বিমান ‘গঙ্গা’ হাইজ্যাক করে ৩১ জানুয়ারি, ১৯৭১ লাহোর বিমানবন্দরে নিয়ে যায়। হাইজ্যাকাররা বিমানটির আরোহী ও কর্মাদের বিমান থেকে নেমে যেতে দেয়। নিজেরা বিমানটির ভিতর বসে থাকে। তাদের দাবি অনুযায়ী বন্দি কাশ্মীরীদের মুক্তিদানে ভারতের অস্বীকৃতির পর ২ ফেব্রুয়ারি ডিনামাইট দিয়ে তারা

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ২৯ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু সাংবাদিকদের সামনে বিবৃতি প্রদান করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

[পাকিস্তানে স্বাসনতান্ত্রিক কাঠামো সম্পর্কে আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে আলোচনার জন্যে পাকিস্তান পিপল্স পার্টির চেয়ারম্যান জুলফিকার আলী ভুট্টো ১৫ জন বিশিষ্ট সদস্যসহ ২৭ জানুয়ারি ১৯৭১ করাচী থেকে ঢাকা আসেন। আওয়ামী লীগ প্রধানের বাসভবনে প্রথম দফা, হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ভুট্টোর স্যুইটে দ্বিতীয় দফা এবং পুনরায় বঙ্গবন্ধুর বাসভবনে মুজিব-ভুট্টো তৃতীয় ও শেষ দফা আনুষ্ঠানিক আলোচনা হয়।

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ২৪ জানুয়ারি ঢাকার ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

পূর্ব পাকিস্তান সঙ্গীত শিল্পী সমাজ বঙ্গবন্ধুর সম্মানে ২৪ জানুয়ারি, ১৯৭১ ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউটে এক সংবর্ধনার আয়োজন করে। শিল্পীদের পক্ষ থেকে প্রদত্ত মানপত্রে শিল্পী আবদুল আহাদ বঙ্গবন্ধুকে ‘বঙ্গ সংস্কৃতির অগ্রদূত’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। অনুষ্ঠানে সভানেত্রীত্ব করেন বেগম লায়লা আর্জুমান্দ বানু। শিল্পীদের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুকে সরোদ, সেতার, একতারা এবং জয় বাংলার রেকর্ড উপহার দেয়া হয়। ১৯৬৫ সালে

বিস্তারিত