Sufi Faruq Ibne Abubakar (সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর)

আর্কাইভঃ রাজনীতি

কুষ্টিয়া-৪ কুমারখালী-খোকশা আসনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের উন্নয়ন শীর্ষক প্রচারণায় তারকারা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ

সংসদীয় আসন ৭৮, কুষ্টিয়া-৪  কুমারখালী-খোকশা আসনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের উন্নয়ন শীর্ষক প্রচারণা করলেন তারকারা। গত শুক্রবার  কুমারখালী-খোকশা এলাকার কুমারখালী বাসস্ট্যান্ড, যদুবয়রা ইউনিয়ন, পান্টি ইউনিয়ন, শিলাইদহ ও চাপড়া ইউনিয়নের লালন শাহ মাজার এলাকায় দিনব্যাপী, ইয়্যুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি সুফি ফারুক ইবনে আবুবকরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পথসভায় জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়ন

বিস্তারিত

আওয়ামী লীগ সরকার এর উন্নয়নের সাথে তুলনা করে ভোট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিন’ -সুফি ফারুক কুমারখালী উপজেলা,কুমারখালী-খোকসা,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ

সুফি ফারুক এর সরকারের উন্নয়ন বিষয়ক, মত বিনিময় সভা, শালঘরমধুয়া গ্রাম, বাগুলাট ইউনিয়ন কুমারখালী খোকসা, কুষ্টিয়া | Sufi Faruq's view exchange session on development of Awami League Government, Shalghormodhua Village, Bagulat Union, Kumarkhali, Khoksa, Kushtia

কুমারখালী উপজেলার বাগুলাট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে, “শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের উন্নয়ন” শীর্ষক   আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  শনিবার সন্ধা ৭ টায়  স্থানীয়, বোর্ড বাজার, বানিয়াখড়ি  বাগুলাট ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনের মাঠে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায়, বাগুলাট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজিজুল হক নবার সভাপতিত্বে, প্রধান আলোচক কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর

বিস্তারিত

প্রতিপক্ষ যখন পাকিস্তানের জাতীয় টিম – তখন খেলার সাথে রাজনীতি মেশাবই। নোট

নদীয়ায় ম্যাচ শেষে কাজী সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে বেরিয়ে আসছেন স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের সদস্যরা ছবি: সংগ্রহীত

খেলার সাথে রাজনীতি মেশাবেন না কথাটি বাংলাদেশের একটি বিশেষ গোষ্টি বারবার বলে। যারা বলে, ‘খেলার সাথে রাজনীতি মেশাবেন না।’ তারা হয়তো জানে না ২৪ জুলাই ১৯৭১-এর কথা; নাম শুনেনি স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের। এ দিন পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর স্টেডিয়ামে উড়েছিল স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা। নদীয়া একাদশের বিপক্ষে জাকারিয়া পিন্টুর নেতৃত্বে প্রথম খেলতে নামে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’রা।

বিস্তারিত

সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন: ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই নোট

Bangladesh National Parliament Building | বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ভবন

১২ জুন, ১৯৯৬। এ দিন সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনটা ছিল ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার নির্বাচন। সে বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি বেগম জিয়া আমাদের একটা অদ্ভুত নির্বাচন উপহার দিয়েছিলেন। তবে এমন নির্বাচন বিএনপির জন্য নতুন ছিলনা। জন্মলগ্ন থেকে দলটা গণভোট থেকে শুরু করে সংসদ নির্বচন, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন থেকে উপনির্বাচনে তেলেসমাতি দেখিয়ে এসেছে।

বিস্তারিত

রাজনীতিতে কেন এবং কিভাবে অংশ নেবেন? আর্টিকেল ওপিনিয়ন

রাজনীতিতে কিভাবে অংশ নেবেন? | how will you take part in politics

দেশের অনেক যায়গায় ঘুরে বেড়াই। কাজের কারণেই অনেক তরুণ তরুণীদের সাথে মেশার সুযোগ হয়। কাজ শেষে এক দুই কথায় দেশের কথা আসে। সংগত কারণেই আসে রাজনীতির কথা। ভেবে অবাক লাগে – এই রাজনৈতিক অকালেও কিছু তরুণরা রাজনীতিতে আগ্রহ দেয়ায়। জিজ্ঞেস করে – রাজনীতি বুঝতে চাই, করতে চাই, কিভাবে সম্পৃক্ত হব, কিভাবে এগিয়ে যাব, ভবিষ্যৎ কি,

বিস্তারিত

মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত সংগ্রাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

bongobondhu

‘এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম’। যতদিন বাঙ্গালীর সার্বিক মুক্তি অর্জিত না হবে, যতদিন একজনও বাঙ্গালী বেঁচে থাকবে, এই সংগ্রাম চলতেই থাকবে। মনে রাখবেন, কম রক্তপাতের মধ্যে যিনি চুড়ান্ত লক্ষ্য অর্জন করতে পারেন তিনিই সেরা সিপাহ-সালার। তাই বাংলার গনগণের প্রতি আমার নির্দেশ, সংগ্রাম চালিয়ে যান। শৃংখলা বজায় রাখুন, সংগ্রামের কর্মপন্থা নির্ধারণের ভার আমার

বিস্তারিত

জয় আমাদের হবেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

bongobondhu

জয়দেবপুরে নিরস্ত্র জনতার উপর গুলি চালিয়ে প্রায় ৪০ জন বাঙ্গালীকে হত্যা করা হয়েছে। আমি এই হত্যাকান্ডের তীব্র প্রতিবাদ করে বলতে চাই, সরকার যদি মনে করে জনগণকে ভীত সন্ত্রস্ত করতে পারবেন তবে তারা মুর্খের স্বর্গে বাস করছেন। দেশ বর্তমানে যে রাজনৈতিক সঙ্কটের সম্মুখীন তার সমাধান শান্তিপূর্ণভাবে হতে পারে। কিন্তু ধৈর্য ও সহিঞ্চুতারও একটা সীমা আছে। জয়দেবপুরের

বিস্তারিত

আওয়ামী লীগের ঘোষণাপত্র বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ

[আওয়ামী লীগের ঘোষণা পত্র রচনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব অংশ গ্রহণ করেন। সেই কারণে আমরা এই ঘোষণা পত্রটিকে এখানে সংযোজিত করলাম] সত্তরের দশকে পৌঁছেই পাকিস্তানের জনগণ যে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে, অন্যকোন দেশের মানুষকে তারচেয়ে বড় কোন চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হয়নি। স্বাধীনতা অর্জন এবং পাকিস্তানসৃষ্টির ফলে দেশবাসীর যে হৃদয় মন আশা-আকাঙ্খার উদ্ভাসিত হয়ে উঠেছিল সে মন নৈরাশ্য

বিস্তারিত

অপপ্রচারের জবাব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

পাকিস্তানের জাগ্রত জনগণের মনে আজ আর কোন সন্দেহ থাকার অবকাশ নাই যে, ষড়যন্ত্রকারী কায়েমী স্বার্থবাদী আর তাদের ফর্মাবরদাররা আজ জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের দ্বারা শাসনতন্ত্র প্রণয়ন ও জনগণের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তরের কার্যক্রম বানচাল করিবার জন্য শেষবারের মতো উম্মত্ত প্রয়াসে মাতিয়াছে। বার কোটি মানুষের ভাগ্য এতই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার যে, ইহা লইয়া ছিনিমিনি খেলার অবকাশ নাই। গত এক

বিস্তারিত

১৯৭১ সালের ১লা মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

পহেলা মার্চ হঠাৎ ঘোষণা হলো জাতীয় পরিষদের অধিবেশন অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল। তারপরই বাংলাদেশের মানুষের সামনে উচিয়ে ধরা হলো মিলিটারির বন্দুক। নিরস্ত্র মানুষ, মজুর, শ্রমিক এবং ছাত্র ভাইয়েরা এই ঘোষণার প্রতিবাদ জানিয়েছিল, নির্বিচারে গুলি চালানো হয়েছে তাদের উপর। গত সপ্তাহে যারা মারা গেছে তারা সব অমর শহীদ। গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার জন্য তারা প্রাণ দিয়েছে। এই শহীদদের

বিস্তারিত