আরবের বাইরে প্রথম মসজিদ , ভারতবর্ষ, অসাম্প্রদায়িকতা এবং সহনশীলতা

আরবের বাইরে প্রথম মসজিদ , ভারতবর্ষ, অসাম্প্রদায়িকতা এবং সহনশীলতা।

ছবিতে দুটি মসজিদের ছবি দেখুন।

আরবের বাইরে প্রথম মসজিদ , ভারতবর্ষ, অসাম্প্রদায়িকতা এবং সহনশীলতা
পালাইয়া জুম্মা পল্লী কিলাকারাই পুরাতন জুম্মা মসজিদ চেরামন জুম্মা মসজিদ

এর মধ্যে প্রথমটি:

পালাইয়া জুম্মা পল্লী কিলাকারাই পুরাতন জুম্মা মসজিদ [ Paḻaiya jum’mā paḷḷi ]:

নির্মিত হয়েছে ৬২৮-৬৩০ সালের মধ্যে।

অপরটি :

চেরামন জুম্মা মসজিদ [ Cheraman Juma Masjid ]

নির্মিত হয়েছে ৬২৯ সালে।

এই দুটি মসজিদ রসুলুল্লাহ (সা:) এর জীবদ্দশায় তৈরি।

এই দুটি মসজিদ মক্কা-মদিনা তথা আরবের বাইরে প্রথম মসজিদ।

ভারতবর্ষ সেই ভূমি যেখানে বিভিন্ন ধর্ম-মতের-বিশ্বাসের মানুষ আশ্রয় পেয়েছে, নিরাপত্তা পেয়েছে। বাইরের বিভিন্ন সাম্প্রদায়িক ভূমি থেকে বিতাড়িত হয়ে ভারতবর্ষের বিভিন্ন রাজ্যে এসে আশ্রয় পেয়েছে।

ইহুদি রা সারা বিশ্বে অত্যাচারিত হলেও ভারতবর্ষে তারা অত্যাচারের স্বীকার হয়নি। পার্সিরা ইরান থেকে বিতাড়িত হয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছে ভারতবর্ষে। মুসলিমদের অন্ত-কোন্দল শুরু হবার পরে, অধিকতর দ্বীনদার দাবীকৃত ক্ষমতাবান মুসলিম শাসকদের দারা বিতাড়িত, দুর্বল ইসলামিক গোত্র এসে আশ্রয় পেয়েছে।
এদের সবাইকে স্বাধীনভাবে স্ব স্ব ধর্মের আচার পালন করতে দেয়া হয়েছে।

শুধুমাত্র এই দুটি মসজিদই নয়, এরকম শত শত ঘটনা সাক্ষ্য দিয়ে চলেছে ভারতভূমির মাটির অসাম্প্রদায়িকতা এবং সহনশীলতার ধর্মের।

আপনার দ্বীন যে কোনটা হতে পারে, কিন্তু প্রকৃতির ধর্ম, মাটির ধর্ম বলে একটা বিষয় আছে। সেটার বিরোধিতা করলে ধ্বংস অনিবার্য।

আরও পড়ুন:

মুসলমানেরা কেন জ্ঞান-বিজ্ঞানে পিছিয়ে ? [ Why Muslims are backward? ]

মন্তব্য করুন