Breaking News :

নারীকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে কুষ্টিয়ার-৪ আসনের খোকসা ও কুমারখালীতে চলছে সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম। এরই অংশ হিসেবে খোকসা উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের ধোকড়াখোল গ্রামে ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ আজ ১৮ এপ্রিল ২০১৮ বুধবার শেষ হয়েছে।

উক্ত প্রশিক্ষণের সমাপনী অধিবেশনে প্রকল্পটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর উপস্থিত না থাকলেও পৃথক এক বক্তব্যে তিনি জানান, নারী ক্ষমতায়নে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া জরুরি। আর সে কারণেই তাদের জন্য এই সেলাই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমার মিশন কুমারখালী-খোকসায় একটি শিক্ষিত, দক্ষ, কর্মঠ ও রুচিশীল প্রজন্ম তৈরি করা। সেই প্রজন্ম তৈরির প্রাথমিক শর্ত মা বোনদের শিক্ষিত, সক্ষম ও স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলা। সে কারণেই তাদের জন্য আমাদের এই সেলাই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম।

ধোকড়াখোল গ্রামে পেশা পরামর্শ সভার ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী
পেশা পরামর্শ সভার আওয়ায় সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান। ধোকড়াখোল গ্রাম, আমবাড়িয়া ইউনিয়ন, খোকসা।

তথ্য প্রযুক্তিবিদ সুফি ফারুক আরো জানান, শেখ হাসিনার আদর্শে প্রাণিত হয়ে আমরা পেশা পরামর্শ সভার আওতায় মা-বোনদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্য নিয়ে সম্পূর্ণ ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ প্রদান করেছি। ভর্তি থেকে শুরু করে প্রশিক্ষণ শেষ করা পর্যন্ত এই বিষয়ে তাদের একটি পয়সাও ব্যয় করতে হয় না। এই প্রশিক্ষণটি তাদের কাছে আমার নেত্রীর পক্ষ থেকে উপহার। এই প্রশিক্ষণ পর্বে প্রশিক্ষণার্থীরা নিত্য প্রয়োজনীয় পোশাকের নূন্যতম ২০ টি আইটেম ও সর্বোচ্চ ৩২ টি আইটেম বানানো শিখেছে। মাপ নেয়া, কাটিং থেকে শুরু করে সেলাই কাজের বিস্তারিত তারা শিখছে। এই কাজগুলো শেখার জন্য এক মাস থেকে ৩ মাস পর্যন্ত প্রতিজন শিক্ষার্থীকে নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। প্রথম ধাপের প্রশিক্ষণ সফল ভাবে শেষ করার পর তারা শুধুমাত্র বাড়ির প্রয়োজনই নয়, নিজের অর্থসংস্থানের উপায় হিসেবে এই দক্ষতা আজীবন কাজে লাগাতে পারবে।

আমাদের অন্যান্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে দেখা গেছে, নারীদের অনেকেই ইতোমধ্যে নিজের সেলাই মেশিন কিনে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কাজ শুরু করে দিয়েছেন। অন্যদিকে অর্থের অভাবে যারা সেলাই মেশিন কিনতে অক্ষম, তাদের প্রতি ৫০ জনের জন্য একটি করে ‘শেখ হাসিনা কমিউনিটি সেলাই কেন্দ্র’ তৈরির প্রকল্প গ্রহণ করা হয়, যেগুলোর ধাপে ধাপে বাস্তবায়ন হচ্ছে। এসব কেন্দ্র কমিউনিটি ভিত্তিতে পরিচালনা হচ্ছে। সেই সেলাই থেকে উপার্জনের সম্পূর্ণ অর্থ তারা নিয়ে যাবে। আর এর মাধ্যমে তাদের সঞ্চয় থেকে একসময় সেলাই মেশিন কিনে নিজেই স্বাবলম্বী হবে।

এসব প্রশিক্ষণার্থীদের মূলধারার অর্থনীতিতে সম্পৃক্ত করতে উদ্যোক্তা প্রতি গ্রুপের একটি সমবায় তৈরির বিষয়ে উৎসাহিত করছেন। এসব সমিতি ও বাইরের বাণিজ্যিক উদ্যোক্তাদের সম্পর্ক তৈরিতে কার্যক্রম গ্রহণ করা হচ্ছে। উদ্যোক্তা জানান, তাদের উত্তরোত্তর দক্ষতা ও আর্থিক সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বিবিধ কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

ধোকড়াখোল গ্রামে পেশা পরামর্শ সভার ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী

পেশা পরামর্শ সভার আওয়ায় সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান। ধোকড়াখোল গ্রাম, আমবাড়িয়া ইউনিয়ন, খোকসা।

তিনি জানান, একটি সুশিক্ষিত, দক্ষ, কর্মঠ ও রুচিশীল প্রজন্ম গড়ার লক্ষ্যে আমার কর্মসূচি গ্রহণ। তৃণমূল পর্যায়ে সুযোগ সুবিধা পৌঁছানোর লক্ষ্যে প্রতিটি গ্রামে শেখ হাসিনা কমিউনিটি সেলাই কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। যেখান থেকে গরীব ও অর্থ বঞ্চিত নারীরা প্রয়োজনীয় সেলাই কার্যক্রম মিটিয়ে নিবে।

কুমারখালীর সদকী ইউনিয়নের ৪টি গ্রাম, চাঁপড়া ইউনিয়নের ৩টি গ্রামে, খোকসা উপজেলা সদরের একটি কেন্দ্রের ফ্রি সেলাই মেশিন কার্যক্রম এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। আজ উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের ধোকড়াখোল গ্রামে এ প্রশিক্ষণ শেষ হলো। এছাড়াও শহরের খয়ের চারা, যদুবয়রা ইউনিয়নের কেশবপুর ও খোকসা উপজেলার জানিপুর আমবাড়িয়া এই কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

পেশা পরামর্শ সভা খোকসা উপজেলার সমন্বয়কারী খাইরুল ইসলাম বলেন, নেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে সুফি ফারুক ভাই কুষ্টিয়ার ৪ আসনের কুমারখালীতে সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় মা-বোনদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে সম্পূর্ণ ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ প্রদান করছেন। যাতে করে গ্রামের মা-বোনেরা স্বাবলম্বী হতে পারে। সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় এ পর্যন্ত বশ কয়েকটি টিমের প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। প্রশিক্ষণের পরে যাদের নিজস্ব সেলাই মেশিন কেনার মতো সামর্থ্য নেই তাদের জন্য সুফি ফারুক ভাই ‘শেখ হাসিনা কমিউনিটি সেলাই কেন্দ্র’ তৈরির প্রকল্প গ্রহণ করেছে। যেখানে কাজ করে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীরা নিজস্ব সেলাই মেশিন কিনতে পারে।

ধোকড়াখোল গ্রামে পেশা পরামর্শ সভার ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী
পেশা পরামর্শ সভার আওয়ায় সেলাই প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান। ধোকড়াখোল গ্রাম, আমবাড়িয়া ইউনিয়ন, খোকসা।

সেলাই প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের প্রশিক্ষক মোছা. শাপলা বেগম বলেন, এরই মধ্যে আমরা বেশ কয়েকটি টিমের প্রশিক্ষণ শেষ করেছি। সকল প্রশিক্ষণার্থীরা প্রশিক্ষণ সফল ভাবে শেষ করার পর তারা শুধুমাত্র বাড়ির প্রয়োজনই নয়, নিজের অর্থসংস্থানের উপায় হিসেবে এই দক্ষতা আজীবন কাজে লাগাতে পারবে। প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীরা এক থেকে ৩ মাসের মধ্যে মাপ নেয়া, কাটিং থেকে শুরু করে সেলাই কাজের বিস্তারিতসহ ২৫টি আইটেম বানানো শিখেছে। সুফি ফারুক ভাইয়ের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ এলাকার মা-বোনদের স্বাবলম্বী করে তুলতে সাহায্য করবে। এমন একটি উদ্যোগ নেয়ার জন্য কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার পৃষ্ঠপোষক সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর ভাইকে এ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সকলের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানায়।

কমিউনিটি সেলাই কেন্দ্রের প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী ছকিনা খাতুন বলেন, কুষ্টিয়ার ৪ আসনের কুমারখালীতে সুফি ফারুক ভাইয়ের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় মা-বোনদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছি যা আমাদের স্বাবলম্বী হতে সাহায্য করবে। আমি এই প্রশিক্ষণ পর্বে কাপড়ের মাপ নেয়া, কাটিং থেকে শুরু করে সেলাই কাজের বিস্তারিত শিখেছি।

কমিউনিটি সেলাই কেন্দ্রের আরেক প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী শ্রাবনী খাতুন বলেন, কুষ্টিয়ার ৪ আসনের কুমারখালীতে সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় মা-বোনদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্য নিয়ে সম্পূর্ন ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ প্রদান করছেন। এখানে এক মাস থেকে ৩ মাস পর্যন্ত প্রতিজন শিক্ষার্থী নিয়মিত প্রশিক্ষণ নিয়ে আসছে। এই প্রশিক্ষণ পর্বে নিত্য প্রয়োজনীয় পোশাকের ২৫টি আইটেম বানানো শিখানো হয়েছে। প্রশিক্ষণটি এলাকার মা-বোনেদের স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করবে পাশাপাশি পরিবারকে সহযোগিতা করতে সাহায্য করবে।

 

এডিট- এসএস

Read Previous

রাধানগর গ্রাম, ৮ নং জয়ন্তিহাজরা ইউনিয়ন, খোকসা, কুষ্টিয়া, খুলনা, বাংলাদেশ

Read Next

সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার আওতায় বিউটিশিয়ান প্রশিক্ষণ