এগিয়ে যাওয়ার গল্প : ইন্টারনেট : পিউ রিসার্চ : ডিজিটাল বাংলাদেশ

এগিয়ে যাওয়ার গল্প : ইন্টারনেট : পিউ রিসার্চ : ডিজিটাল বাংলাদেশ দেশে মুষ্টিমেয় কিছু লোক আছে, যারা কথায়-কথায় আমাদের চেয়ে ভারত-পাকিস্তান কি দুর্বার গতিতে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তার ফিরিস্তি দিয়ে মুখে ফেনা তুলে দেয়। অথচ, বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশগুলো থেকে আমরা অনেক এগিয়ে আছি। যেমন, ইন্টারনেটের ব্যবহার। সাম্প্রতিক যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিউ রিসার্চ সেন্টার উদীয়মান ও উন্নয়নশীল ৩২টি দেশের ইন্টারনেট ও মোবাইলফোন ব্যবহারকারীদের ওপর এক জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে। এই জরিপে দেখা যায় ডিজিটালাইজেশনে আমাদের অগ্রগতি।

এগিয়ে যাওয়ার গল্প : ইন্টারনেট : পিউ রিসার্চ : Making Digital Bangladesh Vision 2021 a reality
ডিজিটাল বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে

দেশের ৭৬ শতাংশ মানুষের যেখানে নিজস্ব মোবাইলফোন আছে, সেখানে পাকিস্তানে রয়েছে ৪৭ শতাংশের। আমাদের ১১ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে কিংবা তাদের স্মার্টফোন আছে। পাকিস্তানের এই হার ৮ শতাংশ আর ভারতের ২০ শতাংশ। ভারতীয়রা এই বিষয়ে আমাদের চেয়ে এগিয়ে থাকলেও অন্যান্য বিষয়ে পিছিয়ে আছে। যেমন: আমাদের ৫৯ শতাংশ ইন্টারনেট গ্রাহক প্রতিদিন অন্তত একবার ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, ভারতের এই হার ৫৪ শতাংশ।

জরিপটি বলছে, ইন্টারনেটে চাকুরী খোঁজার ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ ভারতের চেয়ে এগিয়ে আছে। ভারতের ৫৫ শতাংশ ব্যবহারকারী যেখানে ইন্টারনেটে চাকুরী খুঁজে, সেখানে বাংলাদেশের ৬২ শতাংশ ইন্টারনেটে ব্যবহারকারী চাকরি খুঁজতে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহারেও আমরা এগিয়ে আছি। ভারতের প্রাপ্তবয়স্ক ইন্টারনেট গ্রাহকদের ৬৫ শতাংশ সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এই হার ৭৬ শতাংশ। জরিপটি থেকে আরও জানা যায়, আমাদের দেশের ৬ শতাংশ মানুষের নিজের স্মার্টফোন আছে। এই বিষয়ে বাংলাদেশের চেয়েও পিছিয়ে আছে পাকিস্তান। সেদেশের ৪ শতাংশ মানুষের নিজের স্মার্টফোন আছে।

জরিপটিতে বাংলাদেশের এক হাজার মানুষের মতামত নেওয় হয়।

[ এগিয়ে যাওয়ার গল্প : ইন্টারনেট : পিউ রিসার্চ : ডিজিটাল বাংলাদেশ ]

 

সূত্র: http://goo.gl/b4s1JB

মন্তব্য করুন