Breaking News :

সোহিনী কালের ডায়েরি – ২৫.০১.২০১৮

গ্রামে থাকার সময়, অনেক রাতে ঘুম ভেঙ্গে, কখনও শুনতাম দুর থেকে ভেসে আসছে কোন প্রিয় গান। লতা মঙ্গেশকর, সন্ধ্যা মুখার্জী, সাবিনা ইয়াসমিন… আর কার কার গান যেন। কোনো বাড়ির বিয়ে বা মোসলমানীর মাইক হয়ত।

কান পাতলে কখনও পরিষ্কার শোনা যাচ্ছে, কখনও আবার হারিয়ে যাচ্ছে। বাতাস দিক বদলাবার কারণেও হতে পারে।

দরজা খুলে বাইরে এসে কান পাততাম; যদি আর একটু পষ্ট শোনা যায়…..। ঘরে, বাইরে হয়ত একই রকম শোনা যেত। তারপরেও বাইরে এসে দাড়িয়ে কান পাতার এক দারুণ আনন্দ হতো।

আজ বহুদিন পরে হঠাৎ ঘুম ভেঙ্গে মনে হল, একই ভাবে কোথাও থেকে ভেসে আসছে, পাহাড়ি রাগের কোন সুর। আধা ঘুমে কান পেতে আরও অবাক হলাম- গানটা দাদরা, গাইয়ে ওস্তাদ ছোটে গুলাম আলী। “তুম বিন” শব্দগুলো আসছে, আবার কোথাও মিলিয়ে যাচ্ছে …

লজিক নামের জিনিসটা বিদ্রোহ করতে চাইলো – ঢাকা শহরে এতো রাতে ঠুমরি কেউ শোনে না। আর শুনলেও, ভাঙ্গা গলার, তোতলা আওয়াজের, একজন কাওয়াল বাচ্চা ঘরের গাইয়ের ঠুমরি কেউ রাত দুপুরে শুনবে না।

বাইরে গিয়ে নিশ্চিত হতে ইচ্ছে করছে না। লেপের নিচে দিয়ে, সুরটাকে জড়িয়ে আবার বরং ঘুমিয়ে যাই।

 

শুভ রাত্রি।

 

 

Read Previous

আজ ২৪ জানুয়ারি, চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস

Read Next

শিলাইদহ ইউনিয়নে সুফি ফারুকের পেশা পরামর্শ সভার সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন