বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman : 1970, February]

বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস – সংগ্রহ

বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman : 1970, February]

১৯৭০ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারীতে শহীদ স্মরণে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ

আজকের এইদিনে স্মরণ করি সেইসব শহীদদের যারা নিজের জন্মভূমিকে ভালবাসার অপরাধে অত্যাচারী শাসকের মরণযজ্ঞে অকালে আত্মাহুতি দিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman : 1970, February]আজ স্মরণ করি সেইসব শহীদদের যারা নিজের মায়ের ভাষা বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা দিতে গিয়ে পদলেহণকারী শাসকদের বুলেটে প্রাণ হারিয়েছেন। স্মরণ করি সেইসব ছাত্র ভাইদের গত তেইশ বছর বাঙ্গালীকে মানুষের আসনের প্রতিষ্ঠিত করার জন্য নিজেকে আত্মাহুতি দিয়ে শহীদ হয়েছেন যারা। স্মরণ করি ৭ই জুনের সেইসব শহীদদের যাঁরা ৬ দফার দাবী উচ্চারণ করে বুলেটের সামনে বুক পেতে দিয়েছিলেন। স্বরণ করি আটষট্টি উণষাটের অবিস্মরণীয় গণবিস্ফোরণের বীর সন্তানদের।

এই বিজয় বাঙ্গালীর বিজয়

যতদিন বাংলার আকাশ থাকবে, যতদিন বাংলার বাতাস থাকবে, যতদিন এদেশের মাটি থাকবে, যতদিন বাঙ্গালীর সত্বা থাকবে, ততদিন শহীদদের আমরা ভূলতে পারব না। আমরা কোনক্রমেই শহীদদের রক্ত বৃথা যেতে দেব না। এই বিজয় সাতকোটি বাঙ্গালীর বিজয়, দরিদ্র জনসাধারণের বিজয়।

ইয়াহিয়া সরকারের মধ্যে এমন একটা দল আছে যারা নির্বাচনের পূর্বে নির্বাচন বানচাল করতে চেয়েছিল, যারা এখনও নির্বাচনের ফলাফল নস্যাৎ করে দিতে চায়। আমি জানি কয়েকদিন আগে ঢাকায় এসে তারা মিটিং করে গেছে। আমি জেনারেল ইয়াহিয়াকে অনুরোধ করি, এই ষড়যন্তকারী দলটিকে সামলান, ঠান্ডা করুণ। ষড়যন্ত্রকারীদের বলি, আপনাদেরও কামান বন্দুকে কাজ হয়নি, হবেও না। আপনাদের বিষদাঁত চিরতরে ভেঙ্গে দেবার জন্য বাংলার জাগ্রত মানুষের লাঠি নিয়েই আপনাদের সঙ্গে লড়াই করবে।

[ বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman, Year 1970, February] ]

চরম সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত হোন

ভায়েরা আমার, চরম সংগ্রামের জন্য আপনাদের প্রস্তুত থাকতে হবে, ষড়যন্ত্রের ফলে গণতন্ত্র যদি ব্যর্থ করে দেওয়ার প্রচেষ্টা হয়, আমি আপনাদের ডাক দেব। সেদিন আপনাদের চরম সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

এই ষড়যন্ত্রের কবলে পড়ে আমি যদি চিরতরে আপনাদের ছেড়ে যাই, আমার মৃত্যুর পর বঞ্চিতা দেশমাতৃকার আর গরীব দুঃখিনী মানুষের মুখের দিকে চেয়ে আপনারা কি পারবেন আন্দোলন করে দাবী আদায় করতে?

দ্রব্য মূল্যের বিরুদ্ধে নিবির কারসাজি আছে। যারা গণতান্ত্রিক শক্তির বিরুদ্ধে মানুষকে ক্ষেপিয়ে তুলতে চায় তাদের বলি, জিহ্বা সংযত করুণ, নয়ত জিহ্বা কেটে দেব।

আইন করে শিল্পের মালিকানা শ্রমিকদের মধ্যে বণ্ঠন করে দেওয়া হবে। আওয়ামী লীগকে টাকা দিয়ে বশ করার ক্ষমতা কোন শিল্পপতির নেই!

উত্তর বঙ্গের ভাই বোনেরা শোন, ইনশাল্লাহ যমুনা নদীর পুল হবে, রূপপুর প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। বুড়িগঙ্গা, শীতলক্ষায়ও পুল হবে।

বর্তমানে যে শিক্ষা ব্যবস্থা চলছে, যে শিক্ষা ব্যবস্থা মানুষের কল্যাণে আসে না তা বাতিল করতে হবে।

হিন্দু, বৌদ্ধ, খৃষ্টান ভায়েরা আপনারা শুনে রাখুন, আপনারা পাকিস্তানের সমান নাগরিক। আপনাদের উপর এ যাবৎ ক্ষেত্র বিশেষে অত্যাচার হয়েছে জানি, আমি আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি আর আপনাদের উপর অত্যাচার হবে না।

[ বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman, Year 1970, February] ]

দূর্ণীতি সহ্য করা হবে না।

সরকারি কর্মচারিদের বলি, আপনাদের খাছিলৎ পরিবর্তন করুণ। মনে রাখবেন, আপনারা যাদের উপর ডান্ডা ঘুরাণ, সেইসব দরিদ্র মানুষের টাকাই আপনাদের সংসার চলে। আপনারা দূর্ণীতি পরিহার করুণ। ইয়াহিয়া ৩০৩ জনকে ছাটাই  করেছেন, আমরা তা করব না। জনসাধারণকে আঙ্গুল তুলে দেখিয়ে দিব-ওই যে দূর্ণীতিবাজ কর্মচারী। তাদেরকেই বলব, সাফ করো এই ঝঞ্জাল।

বড় কে আর বড় হতে দেব না, ছোটকে আর ছোট হতে দেব না। সমাজে ছোট বড় ভেদাভেদ তুলে দিব। ব্যাংক, বীমা কোম্পানী অবশ্যই জাতীকরণ করা হবে।

আওয়ামী লীগের কেউ যদি আপনাদের স্বার্থের সাথে বেঈমানী করে, তবে তাকে জ্যন্ত করব দেবেন।

(দিন তারিখ নিয়ে একটু শংসয় আছে)

[ বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস [ Speech of Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman, Year 1970, February] ]

আরও পড়ুন: