শিক্ষা খাতে “Single Umbrella Concept”

“Single Umbrella Concept” শুনতে ভালো, অর্থও ভালো !
কিন্তু দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে সিঙ্গেল আম্ব্রেলা কনসেপ্টের ব্যাখ্যা আসলে কি হবে? আমরা কি করছি?

দুটি অপশন:
১. শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিঙ্গেল আম্ব্রেলার নিচে, দেশের যত রকম খাতের দক্ষ জনশক্তি দরকার, তা তৈরি হবে। সকল খাতের মন্ত্রণালয় /বিভাগ, তাদের বিশেষায়িত শিক্ষা নিশ্চিত করতে, পাঠ্যক্রম, পাঠদান ও পরীক্ষা গ্রহণের বিশেষ বিষয়গুলো নির্ধারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে সহায়তা করবে।
২. প্রতিটি খাতের জনশক্তি তৈরির জন্য ওই সংক্রান্ত মন্ত্রণালয় আলাদা করে তাদের নিজস্ব শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরি ও পরিচালনা করবেন।

মনে রাখতে হবে, ২য় অপশন অনুযায়ী একটি কার্যকর ও গ্রহণযোগ্য শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরির জন্য:
– সংসদে আইন করে শিক্ষা বোর্ড স্থাপন দরকার।
– সেই বোর্ডের আওতায় আইনানুগ ভাবে অনুমোদিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা দরকার।
– আলাদা শিক্ষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র দরকার।
– বোর্ডের আওতায় প্রতিটি বিষয়ের নির্ধারিত – কোর্স কারিকুলাম, পাঠদান পদ্ধতি, শিক্ষা উপকরণ ও পরীক্ষা গ্রহণের পুরো বিষয়টির বাস্তবায়ন ও নিয়মিত পরিচালনা দরকার।
– সেই বোর্ডের সকল কোর্সকে আন্তর্জাতিক ভাবে গ্রহণযোগ্য করার জন্য ব্যবস্থা নেয়া দরকার।
এসব না হলে অর্ধেক কাজ হবে, পুরো ফল আসবে না। এবং এসব বাস্তবায়নে তাদের প্রত্যেককে দিতে হবে প্রচুর টাকা এবং সময়।

একটি তথ্য দিয়ে রাখি, বড় দাগে সরকারের প্রায় ১২ টি মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্রায় ২৬ টি প্রতিষ্ঠান দক্ষতা উন্নয়ন (অন্তত প্রশিক্ষণে) কাজ করে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় “Single Umbrella”র কথা বলে, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগকে যে আলাদা একটি শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরির সুযোগ দিচ্ছে, সেটির অর্থ হল ২৬ টি না হলেও অন্তত ১২ টি নতুন বিশেষায়িত শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরির দিকে আমরা আগাচ্ছি।

“Single Umbrella Concept” বলতে আমরা সাধারণ ভাবে বুঝি যে – যেই বিভাগটি যেই কাজের জন্য বিশেষায়িত তাকে দিয়ে সেই কাজ করানো।
অর্থাৎ মার্কেটিং, সেলস, প্রডাকশন বিজনেসের সামনের দিকের কাজ করে। তাদের সাপোর্ট দেবার জন্য এডমিন, ফাইনান্স, আইটি বা এইচআর ফাংশন দরকার। “”Single Umbrella” মানে স্বতন্ত্র এডমিন, ফাইনান্স, আইটি বা এইচআর বিভাগ তৈরি করা, যারা অন্য সব বিভাগ কে সাপোর্ট দেবে। মার্কেটিং, সেলস, প্রডাকশন বিভাগের আওতায় আলাদা আলাদা এডমিন, ফাইনান্স, আইটি বা এইচআর বিভাগ তৈরি করা নয়।

শেষে আবার প্রশ্নে ফিরি – আমরা কি প্রতিটি মন্ত্রণালয়ের আওতায় একটি শিক্ষা বিভাগ খুলবো, নাকি শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে দিয়েই শিক্ষা ও দক্ষতা উন্নয়নের পুরো কাজটি করাবো?

Read Previous

বাংলাদেশের পরম বন্ধু শ্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় কে বিদায়