‘শেখ হাসিনা ফ্রি হেলথ ক্যাম্প’ এর শুভ উদ্বোধন- কুমারখালি উপজেলা, বাগুলাট ইউনিয়ন, বাঁশগ্রাম

বাঁশগ্রাম হেলথ ক্যাম্প | Health Camp Banshgramআমার জননী মেহিরুন্নিসা, ডাকনাম ‘বুলবুলি’, মাঝে মধ্যে গ্রামের বিভিন্ন মানুষের স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা নিয়ে আমাকে বলেন করেন। ডাক্তার দেখানো, হসপিটালে ভর্তি, ছোট-খাটো অপারেশন মাঝে মধ্যেই করতে হয়। তারই অনেকদিনের দাবী ছিল গ্রামের সাধারণ মানুষের জন্য নিয়মিত হেলথ ক্যাম্প। আমাদের গ্রামের বাড়ি ‘অন্নপূর্ণা’ থেকেই সেই কাজটা শুরু করা হল।

শুরুর ক্যাম্পটি আমার মা মেহিরুন্নিসা উদ্বোধন করেন। প্রথম ক্যাম্পেই এলাকার ২৫০ এর ও বেশি রোগীকে বিনা মূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা, প্রেসক্রিপশন, রক্তের গ্লুকোজ-গ্রুপ নির্ণয় ও কিছু সাধারণ টেস্ট সহ ঔষধ সরবরাহ করা হয়। প্রতি মাসে একবার করে চলছে এই ক্যাম্প।

জানা যায়, এলাকার গরীব-অসহায় মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে প্রযুক্তিবিদ সুফি ফারুক দীর্ঘ দিন থেকে কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে নিজ গ্রামে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ‘শেখ হাসিনা ফ্রি হেলথ ক্যাম্প’। এখনে চিকিৎসা বঞ্চিত ২৫০ জন রোগীকে বিনা মূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা, প্রেসক্রিপশন, রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা, রক্তচাপ নির্ণয়, রক্তের গ্লুকোজ নির্ণয় ও কিছু সাধারণ টেস্টসহ ঔষধ সরবরাহ করা হয়।

এ বিষয়ে ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভাপতি ও প্রযুক্তিবিদ সুফি ফারুক জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সবার জন্য স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে ব্যাপক কাজ করছে। বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে সবার কাছে সেবা পৌঁছে দিতে কমিউনিটি ক্লিনিক প্রধান ভূমিকা রাখছে। প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম এই উদ্যোগ এখানে ব্যাপক সফলতা অর্জন করছে। ক্লিনিকগুলোতে আন্তরিক পরিবেশে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়। সম্পূর্ণ সরকারিভাবে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের মাধ্যমে পল্লী অঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নত করছে।

চিকিৎসা সেবা নিতে বাঁশগ্রাম থেকে আসা এক ব্যক্তি বলেন, গত কয়েক দিন যাবত হাঁপানি ও শ্বাস কষ্টে ভুগছেন। তার পক্ষে ১০ কিলোমিটারেরও বেশি দূরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই ‘শেখ হাসিনা ফ্রি হেলথ ক্যাম্পে’ সেবা নিতে এসেছেন। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ওষুধ-পত্র পেয়ে খুশি তিনি। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

এদিকে হেলথ ক্যাম্পে অংশ নেয়া স্বেচ্ছাসেবীরা বলেন, মানুষকে সাহায্য করতে পারা দারুণ এক বিষয়। আমরা চাই মানুষের সেবা করতে। কিন্তু সব সময় সুযোগ হয়ে ওঠে না। সবচাইতে বড় বিষয়, আমরা এককভাবে এমন ফ্রি হেলথ ক্যাম্প আয়োজন করতে পারি না। সুফি ফারুক ভাই আমাদের এমন একটি উদ্যোগের কথা জানানোর পর আমরা খুবই খুশি হই। বাংলাদেশের প্রতিটি অঞ্চলে এমন একজন উদ্যোগী মানুষ প্রয়োজন। তাহলে দেশের চিকিৎসা খাতের উন্নয়ন হওয়া নিশ্চিত।

অনুষ্ঠানে প্রশাসনিক, রাজনৈতিক ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত প্রতি মাসের এই ক্যাম্পের আর্থিক সহায়তা দেয় সুফি ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন। আয়োজন সহযোগিতা করছে – সাসেগ গুরুকুল হেলথ ক্লাব, #‎TeamSufiFaruq‬ এর সদস্যরা এবং এলাকাবাসী।

এই প্রকল্পের ফেসবুক পাতা: https://www.facebook.com/SheikhHasinaHealthCamp