মরীচিকা ধরতে – একই রাস্তায়, একই পদ্ধতিতে অবাস্তব যুদ্ধ | উৎসব নিয়ে ইসলামিক বিতর্ক বিষয়ে মতামত

কাশতি ভি নেহি বাদলি, দারিয়া ভি নেহি বাদলা
হাম ডুবনেয়ালোকা জাজওয়া ভি নেহি বাদলা ।
হ্যায় শওখ-এ-সাফর এয়সা, ইক উমর সে ইয়ারোনে
মনজিল ভি নেহি পায়ী, রাস্তা ভি নেহি বাদলা ।
খাবো কি জাজিরে কা, নাকশা ভি নেহি বাদলা ।

অনেকদিন আগে এক “ধর্ম ও রাজনীতি” নিয়ে আলোচনায়, এক মুসলিম বন্ধু, আমাদের দক্ষিণ এশিয়ার মুসলমানদের অবস্থা নিয়ে এই উর্দু কবিতা শুনিয়েছিলেন। কবি সম্ভবত গোলাম কাসির। পরে এক বইয়ের মোড়ক উন্মোচনের একটি অনুষ্ঠানে আরেফ খান সাহেবের মুখেও একবার শুনলাম।

হজরত মুসা (আ:) মহান আল্লাহকে বলেছিলেন- হে আল্লাহ আপনি যদি আমার উম্মতের উপরে অসন্তুষ্ট হন, তবে যে সাজাই দেন, তাদের বিবেক-বুদ্ধি কেড়ে নেবেন না। উত্তরে মহান আল্লাহ বলেছিলেন – মুসা, আমি নাখোশ হলে তু শুধু বুদ্ধিটাই ফিরিয়ে নেই। বাকি তো সব এমনিতেই চলে যায়।

সামাজিক বৈষম্য, অনাচার, ঘুষ, জঙ্গীবাদের মতো ধর্মের দৃষ্টিতে ফান্ডামেন্টাল বিষয়গুলোতে নির্বাক থেকে, যখন বৈশাখ উৎসবের মতো ধর্মের দৃষ্টিতে ট্রিভিয়াল ম্যাটারে কিছু উলেমাকে সরব হতে দেখি, তখন এগুলো বারবার মনে হয়।

Read Previous

ইশতিহাদ এর রাস্তা খুলতে হবে

Read Next

কোরআন হেফাজত বা বলবত করা কি মানুষের দায়িত্ব?