আমার মওলানা আবুল কালাম আজাদ

মওলানা আবুল কালম আজদ আমার প্রিয় মানুষ, আদর্শ মানুষের একজন। নিবেদিতপ্রাণ মুসলিম অথচ কুসংস্কারহীন এবং ধর্মনিরপেক্ষ, উদারবাদী, দূরদৃষ্টিসম্পন্ন উন্নত চরিত্রের আদর্শ।

মুসলিম হিসেবে আমার আত্মপরিচয় এবং মুসলিম হিসেবে সমাজ ও রাষ্ট্রের সাথে আমার সম্পর্ক ও দায়িত্ব বিষয়ে তিনি দারুণ প্রভাব বিস্তার করে আছেন।

পার্টিশনের মুখে দিল্লির জামে মসজিদের বক্তৃতা – মওলানা আবুল কালাম আজাদ (১৮৮৮ -১৯৫৮)

মওলানা আবুল কালাম আজদের সাহিত্য ও সঙ্গীতে বিশেষ আগ্রহ ছিল। তিনি নিজে শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শিখেছিলেন, সেতার শিখে বাজাতেন। তার নিজের ভাষায় সে সম্পর্কে তিনি তিনি লিখে গেছেন। তার সেই লেখা আবৃত্তি করেছেন বিখ্যাত বাচিক শিল্পী জিয়া মহিউদ্দিন।

Read Previous

শুনে মুসলমান ভাই ও বোনদের বলছি, আমি আপনাদের শত্রু না

Read Next

বাসওদার মরিয়ম – আসাদ মোহাম্মদ খান । অনুবাদঃ জাভেদ হুসেন