Breaking News :

রাগ মালকোষ

 রাগ মালকোষ- শ্রোতা সহায়িকা নোট (১)

 

মালকোষ মাত্র ৫ টি সুরের রাগ।  কিন্তু প্রায় প্রতিটি সুরে দাড়ানো যায় এবং বেশিরভাগের জোড়া করে ব্যবহার করা যায় বলে  রাগটি ভিষন বড় । প্রায় সব ধরনের গানবাজনা হয়েছে এই রাগে। এই রাগ থেকে বেশি কয়েকটি নতুন রাগের জন্মও হয়েছে।

এই রাগের প্রকৃতি গম্ভীর। ভৈরব ঠাটের রাগ।
এর স্বর গুলি হল, সা, কোমল গা, শুদ্ধ মা, কোমল ধা, এবং কোমল নি। বাদী স্বর হল মধ্যম (মা) এবং সমবাদী স্বর সাড়জ (সা)।

আরহে-আবরহে ৫ সুরের কারনে রাগটির জাতি ঔড়ব-ঔড়ব।

আরোহ: নিৃ সা গা মা ধা নি র্সা
অবরোহণ: র্সা নি ধা মা গা সা। বা র্সা নি ধা মা গা সা

পাকাড়:

আরোহ-আবরোহ এই লিঙ্ক গুলোতে গিয়ে শুনে নিতে পারেন । লিংক ১  ।

কাজী নজরুল ইসলামের মালকোষ:

নজরুলের অনেক গান রাগাশ্রয়ী। নির্দিষ্ট রাগের আশ্রয়ে যে গানগুলোতে সুর করা হয়েছে, সেগুলোর পুরো সুরে রাগের অবয়ব বজায় রাখার চেষ্টা থেকেছে; খুব বেশি রাগভ্রষ্ট হয়নি। তাই নজরুলের গানগুলো কান তৈরিতে বেশি উপযোগী বলে আমার কাছে মনে হয়।

১. ফিরোজা বেগমের : গরজে গম্ভীর গগনে কম্ভু

২. অজয় চক্রবর্তী- শ্মশানে জাগিছে শ্যামা মা

 

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের মালকোষ:

কবিগুরু তার অনেক কম্পোজিশনে প্রচলিত রাগের আশ্রয় নিলেও অনেক সময় রাগের কাঠামোতে তিনি আটকে থাকতে চাননি। তাঁর সুরের পথ রাগের বাইরে চলে গেছে প্রায়শই। আমার কাঁচা কান যা বলে, তাতে বিশুদ্ধ রাগাশ্রয়ী গান হিসেবে তাঁর গান অনেক ক্ষেত্রেই খুব ভালো উদাহরণ নয়।

১. ট্যাগর কাভার প্রডাকশনের – আনন্দধারা বহিছে ভুবনে (মিশ্র)

পুরো মালকোষে রবীন্দ্রনাথের কোন গান নেই। এই বিষয়ে সমীর সেনগুপ্ত লিখছেন — “আর এইখানেই ভারতীয় সঙ্গীতের ঐতিহ্য থেকে রবীন্দ্রনাথ দূরে সরে যান। ইনি গান রচনা করেছেন, কিন্তু মালকোষে গান রচনা করেন নি। রবিশংকর যখন দু-ঘণ্টা মালকোষ বাজিয়ে ওঠেন, তখন তাঁকে কেউ জিজ্ঞাসা করে না ‘মশাই, এই যে দু-ঘণ্টা মালকোষ বাজালেন, ঠিক কি বলতে চাইলেন বলুন তো?’ সেটা যতোখানি বেয়াদবি হবে, ততখানিই বেয়াদবি হবে রবীন্দ্রনাথের কোন গান, যেটা মালকোষের মত লাগছে, কিন্তু স্বর সবসময় মালকোষের মত চলছে না, বা কোথাও এমন পর্দা লাগছে যেটা মালকোষে লাগে না, সেটা মালকোষ হচ্ছে না বলে প্রতিবাদ করা; কারণ রবীন্দ্রনাথ মালকোষে গান বাঁধেন নি। এবং সেখানেই তিনি রবীন্দ্রনাথ হয়ে উঠেছেন যেখানে তিনি মালকোষ থেকে সরে গেছেন।”

Ragmala Painting of Malkauns Raga

আধুনিক গানে মালকোষ:

১. হৈমন্তি শুক্লার কি গান শোনাবো বলো ওগো সুচরিতা

২. অমিতাভ ঘোষের গান – মধুরাত বয়ে যাবে

৩. শচীন দেববর্মনের – আমি ছিনু একা, বাসর জাগায়ে (কথা: শৈলেন রায়, সুর: হিমাংশু দত্ত)

 

গজলে  মালকোষ:

১. ওস্তাদ মেহদি হাসান – খাব থা ইয়া খায়াল

২. জগজিৎ সিং ও অনুপ জালোটা – পাগ ঘুংরু বাধে মিরা নাচে

৩. ওসমান মীর – নিন্দ রাতো কো

৪. জসবিন্দার সিং – রাজ এ উলফাত

৫. ফরিদ আহমেদ – দারদে জিগার কি সিনে মে

৬. কবি আসলাম নাভেদের প্রইভেট গজল আড্ডা – দিল কি বাত লাবো পার লা কার আবতাক হাম

 

হিন্দি ফিল্মের গানে মালকোষ:

১. Mann Tadpat – Mohammad Rafi

২. Aaye Sur Ke Panchhi Aaye (Film – Sur Sangam (1985)), Tal – Tintal, Music Director(s) – Laxmikant, Pyarelal, Singer(s) – Rajan Mishra

৩.

 

মালকোষে গীত:

ওস্তাদ বড় ফাতেহ আলী খান – পেয়ার নেহি হ্যায় সুরসে জিসকো

 

ঠুমরিতে  মালকোষ:

১. ওস্তাদ গোলাম আলী – আজ মোরি ঘার

 

ভজনে মালকোষ:

১.

 

চেতনা সঙ্গীত:

১. ১. মতুয়া গানের অ্যালবাম- “তোমার অমৃত বানী ” এর- দিয়েছো দিশা তুমি (কথা ও সুর – পবিত্র বিশ্বাস, কণ্ঠ – অন্তরা বিশ্বাস, রাগ – মালকোষ , তাল – আদ্ধা)।

 

মালকোষে জিনান (শিয়া ইসলাইলীদের ভক্তি সঙ্গীত):

১. আবিদা পারভীন – আয়ে আয়ে রহীম রহমান

 

অন্যান্য:

১.

 

যন্ত্রে মালকোষ:

সেতার:

১. ইমদাদখানী ঘরানার শহীদ পারভেজ খানের সেতারে – মালকোষ

 

সাঁনাই:

১. ওস্তাদ বিসমিল্লাহ খানের – মালকোষ

 

সরদ:

১.মাইহার ঘরানার খলিফা ওস্তাদ আলী আকবর খানের সরদে- মালকোষ

২. ওস্তাদ আমজাদ আলী খানের – মালকোষ

 

খেয়াল:

১. রামপুর সহসওয়ান ঘরানার ওস্তাদ রশিদ খানের – মালকোষ

২. আমীর খান সাহেব এর- মালকোষ

৩. পণ্ডিত কুমার গান্ধর্বের কেদার – মালকোষ

৪. ওস্তাদ বড় গোলাম আলী খান সাহেব এর – মালকোষ

৫. ওস্তাদ আমানত আলী ও বড় ফাতেহ আলী খাঁ সাহেবের – মালকোষ

৪. জয়পুর ঘরানার শিল্পী কিশোরী আমনকারের গলায় – মালকোষ

৫. পণ্ডিত মুকুল শিবপুত্রের- মালকোষ

৬. সন্ধ্যা মুখপাধ্যায় এর মালকোষ – এ আয়ে পিয়া মান্দেরওয়া

 

টিউটোরিয়াল:

যেকোনো রাগের স্বরের চলাফেরা বোঝার জন্য ২/৫ টি স্বর-মালিকা বা সারগম-গীত শোনা দরকার। স্বর মল্লিকার পাশাপাশি দু একটি  লক্ষণ গীত (বা ছোট খেয়াল) শুনলে সহজ হতে পারে। লক্ষণ গীত মূলত শেখানো হয় রাগের লক্ষণগুলো সহজে ধরতে। লক্ষণ গীত ছোট খেয়াল প্রায় একই কাজ করে। অনলাইনে অনেক গুলো আছে। একটু খোঁজাখুঁজি করলে পেয়ে যাবেন। স্যাম্পল হিসেবে নিচের দুটো লিংক দেয়া হল।

১. রাগ মালকোষ এর স্বরমল্লিকা

২. এনিসিআরটির টিউটোরিয়াল

৩. পন্ডিত জ্ঞানপ্রকাশ ঘোষের “গান শিখি, গান গাই” টিউটোরিয়াল

৪. পন্ডিত জ্ঞানপ্রকাশ ঘোষের “গান শিখি, গান গাই” টিউটোরিয়াল ২

 

রিলেটেড রাগ:
চন্ত্রকোষ

 

মালকোষ সম্পর্কে আরও জানার জন্য:

১. উইকি আর্টিকেল

২. অটোমেটেড ট্রান্সক্রিপশন প্রজেক্ট এর- মালকোষ কেদার

 

সিরিজের বিভিন্ন ধরনের আর্টিকেল সূচি:

গান খেকো সিরিজ- সূচি
শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ব্যাকরণ বা শাস্ত্র সূচি
রাগ শাস্ত্র- সূচি
রাগ চোথা- সূচি
রাগের পরিবার ভিত্তিক বা অঙ্গ ভিত্তিক বিভাগ
ঠাট ভিত্তিক রাগের বিভাগ
সময় ভিত্তিক রাগের বিভাগ
ঋতু ভিত্তিক গান (ঋতুগান) এর সূচি
রস ভিত্তিক রাগের বিভাগ
উত্তর ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের রীতি/ধারা
সঙ্গীতের ঘরানা- সূচি
সুরচিকিৎসা- সূচি
শিল্পী- সূচি
প্রিয় গানের বানী/কালাম/বান্দিশ- সূচি
গানের টুকরো গল্প বিভাগ

Declaimer:

শিল্পীদের নাম উল্লেখের ক্ষেত্রে আগে জ্যৈষ্ঠ-কনিষ্ঠ বা অন্য কোন ধরনের ক্রম অনুসরণ করা হয়নি। শিল্পীদের সেরা রেকর্ডটি নয়, বরং ইউটিউবে যেটি খুঁজে পাওয়া গেছে সেই ট্রাকটি যুক্ত করা হল। লেখায় উল্লেখিত বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত যেসব সোর্স থেকে সংগৃহীত সেগুলোর রেফারেন্স ব্লগের বিভিন্ন যায়গায় দেয়া আছে। শোনার/পড়ার সোর্সের কারণে তথ্যের কিছু ভিন্নতা থাকতে পারে। আর টাইপ করার ভুল হয়ত কিছু আছে। পাঠক এসব বিষয়ে উল্লেখে করে সাহায্য করলে কৃতজ্ঞ থাকবো।

*** এই আর্টিকেলটির উন্নয়ন কাজ চলমান ……। আবারো আসার আমন্ত্রণ রইলো।

Read Previous

রাগ কিরওয়ানি

Read Next

রাগ মিয়া-কি-মালহার, মিয়া-মল্লার