Breaking News :

বক্তৃতা সংগ্রহের উদ্দেশ্য

সবদেশে-সবকালে রাজনীতিতে বক্তৃতার গুরুত্ব অপরিসীম।
পৃথিবী বদলে দেয়া সিদ্ধান্তগুলোর ঘোষণা হয়েছে কোন একটি বক্তৃতার মাধ্যমে। কয়েক মিনিটের বক্তৃতা বদলে দিয়েছে কোন দেশের মানচিত্র; কোন জাতির ভাগ্যাকাশ। সেসব বক্তৃতাতে এক ধরনের যাদুশক্তি ছিলো। কয়েক মিনিটে আবৃত্তি করা সেসব পঙক্তিমালার শক্তি – লক্ষ, বুলেট বোমাকে হার মানিয়েছে।

যুগেযুগে আদর্শ প্রচারের সবচেয়ে বলিষ্ঠ মাধ্যম বক্তৃতা।

যেকোন একটি সময়কে বোঝার জন্যও বক্তৃতার বিকল্প নেই।

এসব কারনেই কারণেই যুগেযুগে বক্তৃতা গুলো ইতিহাসের গুরুত্বপুর্ন দলিল হয়েছে। আমাদের অতীতকে জানার জন্য এগুলো জানা দরকার।

নেতাকে মুল্যায়ন করার সবচেয়ে কার্যকারি মাধ্যম হলো ভাষন। কোন এক নেতার কন্ঠ দিয়ে। রাজনীতির কবি হয়েছেন।

এই ওয়েবসাইটটি সকল ভাষণের একটি সংগ্রহশালা। ভাষনের সাথে ক্রমস সেই সময়কার ছবি, ভিডিও ও বিশ্লেষনগুলো যুক্ত করা হবে।

পরবর্তীতে একটি টাইমলাইনে নিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে। খুব সহজে ব্রাউজ করে সময়কে অতিক্রম করা যাবে।

Read Previous

যদি আর বাঁশী না বাজে – কাজী নজরুল ইসলাম (মে ২৪, ১৮৯৯ – আগস্ট ২৯, ১৯৭৬)

Read Next

৯ নম্বর আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের গ্রামের গ্রাম