ধর্মনিরপেক্ষতা, ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ, সেক্যুলারিজম – কি, কেন, কিভাবে?

ধর্মনিরপেক্ষতা, ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ, সেক্যুলারিজম – কি, কেন, কিভাবে?

ধর্মনিরপেক্ষতা শব্দটি ইংরেজি সেক্যুলারিজম (Secularism) এর বাংলা অনুবাদ। এই অনুবাদটি সঠিক হয়েছে কি না সেটি নিয়ে বিতর্ক আছে। তবে সেই …

Read more

কবি আল মাহমুদের জন্য কান্না !

কবি আল মাহমুদ জীবনের প্রতিটি পর্যায়ে যখন আদর্শ বদলে নতুন পরিচয় নিয়েছেন, তখন নতুন পরিচয় পাকা করতে আগের আদর্শ-কর্মকে অস্বীকার করেছেন।

বিপ্লবী, আওয়ামী লীগ, জাসদ, আওয়ামী লীগ, জিয়া – পর্যন্ত আসতে আসতে বহুবার তিনি সেই কবি আল মাহমুদ কে হত্যা করে, নতুন আল মাহমুদের জন্ম দিয়েছেন। প্রতিবারই আত্মহত্যা করে পুনর্জন্ম নিয়েছেন তিনি স্বেচ্ছায়। প্রতিবার কবিত্ব হত্যা করেছেন সবচেয়ে বেশি, সে জায়গা পুরণ করেছেন সুবিধাবাদ দিয়ে, অসহায়ত্বের অজুহাতে। এরশাদ জন্ম পর্যন্ত আসতে আসতে তিনি আর কবিও ছিলেন না।

শারীরিক ভাবে মারা যাবার আগে তিনি ছিলেন জামায়াতে ইসলামীর বুদ্ধিজীবী। এটাই তার শেষ পরিচয়। নিজের বেছে নেয়া পরিচয়।

যে আল মাহমুদ নিয়ে আপনি কাতর, তার হত্যাকারী আল মাহমুদ স্বয়ং।

তাই কাঁদবেন কার জন্য?
মার্ডার্ড আল মাহমুদের জন্য, নাকি মার্ডারার আল মাহমুদের জন্য?

কিরাআত প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ

কিরাআত প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান

সুফি ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের কিরাআত প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। পবিত্র মাহে রমজানে খোকসা উপজেলাতে মাস …

Read more

প্রেস মেশিন হারাম

প্রেস মেশিন হারাম বলে যখন ফতোয়া দেয়া হয়েছিল, সেই ফতোয়া কিন্তু তৎকালীন ইসলামের সর্বোচ্চ অথরিটি, শাইখ-উল-ইসলাম দিয়েছিলেন।
রেডিও, ইংরেজি শিক্ষা, লাউডস্পিকার, এলোপ্যাথি, ছবি তোলা, ভিডিও করা, অর্গান রিপ্লেসমেন্ট এর বিপক্ষের ফতোয়াগুলোও তাই।

এই সব ফতোয়াই দিয়েছিলেন সেই যুগের বড় আলেমরা। কোরান হাদিস রিসার্চ করেই দিয়েছিলেন। মানে ফতোয়াগুলো সম্পূর্ণ ইসলামিক ছিল। সেই যুগে সেই ফতোয়ার বিরোধিতা করা মানে সরাসরি ইসলাম বিরোধী, মানে “কাবিলে গারদানজানী”।

শায়খরা ফতোয়া দিয়েছেন, আর সেই ফতোয়া শুনে সাধারণ মুসলমানরা জান-প্রাণ দিয়ে সেই ফতোয়া বাস্তবায়ন করেছেন। বাস্তবায়নের জন্য যেমন চাপ প্রয়োগ দরকার তা সামর্থ্য অনুযায়ী করেছেন। সেসব করেছেন “আল আমরি বিল মারুফ ওয়া নাহিআনিল মুনকার” শ্লোগান দিয়েই।

প্রেস মেশিন হারাম থেকে হালাল হতে প্রায় ২০০ বছর লেগেছিল। বাকি গুলো আপনারা জানেন।

একালের শায়খরা করোনা টিকা প্রথমে হারাম করে, এরপর হালাল করে, নিজেরা সেই টিকা নিয়ে দিব্যি ওয়াজ করে বেড়াচ্ছেন (মহান আল্লাহ উনাদের দীর্ঘ হায়াত দিন)।

যখন এসব হারাম হিসেবে ঘোষিত হল, তখন সাধারণ মুসলিম কেউ এই সিদ্ধান্তের ইসলামিক রেকর্ড-দাগ-খতিয়ান জানতে চাননি। হালাল হবার পরেও কিছু জানতে চাননি। আর তারা নিজেরা যে দলিল দস্তাবেজ উল্টে দেখবেন, সেটার তো প্রশ্নই আসে না। শোনা কথায় সহজ – আমান্না, সাদ্দাকনার লাইন নিয়েছেন।

আমাদের কারও সাহস হয়না জিজ্ঞেস করা – কুরআন নির্ধারিত, হাদিসও তাই, ইশতেহাদ-ইজমা-কিয়াসের রাস্তা বন্ধ হয়েছে বহু আগে। এরপর হারাম জিনিস হালাল হয় কিভাবে? কিভাবে সীমিত পরিসর থেকে, বৃহৎ পরিসরে সম্পূর্ণ হালাল হয়ে যায়?

মহান আল্লাহর দেয়া “আল-কিতাব”, তার নেয়ামত চক্ষু-মাথা দিয়ে মিলিয়ে দেখার সময় হয়নি !

ওই প্রশ্নগুলোর উত্তর আমি জানি।
আলেমদের কি হিসাব হবে, সেটা মহান আল্লাহ আর তাদের নিজেদের মধ্যের বিষয়। সেটা নিয়ে আলাপ নাই করলাম।
কিন্তু যেটা জানতে চাই তা হল – এসব ফতোয়া বাস্তবায়ন করতে যেসব শোনা মুসলমানগণ নানা লোকের উপরে নানা রকম অত্যাচার করেছেন, তাদের দায় কি কেয়ামতের দিন উক্ত আলেমরা নেবেন? নেবার কোন সুযোগ আছে?

এনি আইডিয়া?

আহলে এলেম, যারা সাহেবে হ্যাসিয়াত শুধুমাত্র তাদের থেকে উত্তর আশা করছি।
#Islam #islamic #haram #halal

 

লেখার ফেসবুক লিংক : লিংক

 

আরও দেখুন:

প্রভা আত্রেও চলে গেলেন

প্রভা আত্রেও চলে গেলেন।
ওনার মরু বিহাগ শুনতে শুনতে বৌকে বলতাম, যদি কোনদিন ওনাকে প্রেম নিবেদনের সুযোগ হয়, আর উনি যদি নিবেদনে সাড়া দিয়ে ফেলেন, তাহলে আমাকে কিন্তু আর পাওয়া যাবে না কিছুতেই !

শুধুমাত্র গান-বাজনাতেই না, একাডেমিক কাজেও শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের অনেক খেদমত করেছেন তিনি।

শান্তিতে থাকুন প্রভা আত্রে।
কিরানার সঙ্গীতের উপযুক্ত খাদেম হিসেবে আপনার নাম উজ্জ্বল থাকুক।

আত্মস্থ করা তো দূরে থাক, ইদানীং একটা শোক হজম করার সময় হয় না, অন্য আরেকটি খবর দরজায় এসে দাড়ায়। ক্লান্ত, ঘর্মাক্ত মনে শুনি। শুনে আচারিক অভিব্যক্তি বা খারাপ লাগার অভিনয়। তারপর আবার সেই একই ….। কাজের মাঝে কখনো চোখ ভিজে আসলেও গোপনে মুছতে হয়, পাছে লোকে পাগল না ভাবে।

এইসবের মধ্যেও মনে করি.. আজাদ রহমান চলে গেলেন, তার বাংলা খেয়ালের সব মিলিয়ে হয়তো ২০ ঘণ্টারও আর্কাইভ নই। ওস্তাদ নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরীর কাছ থেকে তার দুই ঘরানার গান-গল্প কতটুকু সংরক্ষণ হল? কবীর সুমনের ব্লটিং পেপারের কতটুকু বের করে রাখ গেল?

এই সকাল-বিকেল তারকার যুগে আর কাউকে দেখা যাবে না ওনাদের মতো। কেউ আর অমন বনস্পতির মতো দাঁড়াবেন না, ছায়াও দেবেন না।
আগামী প্রজন্মের জন্য যত্ন করে সংরক্ষণের শেষ সময়ও চলে যাচ্ছে। কিন্তু এমন এক সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছি, যখন সিস্টেমের লোকজন এসবের কোন গুরুত্ব দেবার বদলে, দুটো টাইলস বেশি লাগানো গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন।

 

 

উন্নয়নে ব্রাহ্মণবাড়িয়া

উন্নয়নে ব্রাহ্মণবাড়িয়া

জেলা প্রশাসন ব্রাহ্মণবাড়িয়া কর্তৃক বাস্তবায়িত বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সচিত্র প্রতিবেদন   উন্নয়নে ব্রাহ্মণবাড়িয়া

জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রম সমূহ

জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন

জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রম সমূহ সম্পর্কে জানতে আজকের আর্টিকেল। জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ একটি সরকারী …

Read more

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ১০টি বিশেষ উদ্যোগ

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'র ১০টি বিশেষ উদ্যোগ

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ১০টি বিশেষ উদ্যোগ,  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী …

Read more

পার্বত্য চট্টগ্রাম হতে পারে সারা পৃথিবীর ফলের ঝুড়ি (Fruit Basket of The World)

পার্বত্য চট্টগ্রাম হতে পারে সারা পৃথিবীর ফলের ঝুড়ি (Fruit Basket of The World)

আমরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর জেলা পর্যায়ের অফিসে স্মার্ট কণার উদ্বোধন ও কর্মীসভা করার জন্য গত মাসে পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলাগুলো …

Read more