Breaking News :

রাগ পাহাড়ি

রাগ পাহাড়ি – শ্রোতা সহায়িকা নোট (১)

*** এই আর্টিকেলটির উন্নয়ন কাজ চলমান ……। আবারো আসার আমন্ত্রণ রইলো।

পাহাড়ি ছোট একটা রাগ। সেমি ক্লাসিকাল গান বাজনায় খুব জনিপ্রয় রাগ। কেউ বলেন, রাগ পাহাড়ি এসেছে – কাশ্মীর, হিমাচল, উত্তরকান্দ থেকে। কেউ বলেন আসাম বা নেপালর পাহাড়ি সুরের থেকে। বড় ওস্তাদরা এটাকে একসময় রাগ হিসেবে স্বীকৃতি দিতে চাইতেন না। ধুন হিসেবেই চালানো হতো। তাই পাহাড়িতে খেয়াল গাইতে শোনা যায়নি। তবে এখন পাহাড়ি রাগ হিসেবে স্বীকৃত এবং সেমি ক্লাসিকালে খুবই জনপ্রিয়।

শুধু পাহাড়িই না, অনেকগুলো রাগের জন্ম হয়েছে লোকসঙ্গীত থকে। রাজস্থানের লোকসঙ্গীতের থেকে তৈরি হয়েছে রাগ মান্দ। Hindi heartland এর লোকসঙ্গীত থেকে জন্ম হয়েছে পিলু রাগের। এই সবগুলো রাগেরই হৃদয় যদি হয় শাস্ত্র, তবে শরীর লোকসঙ্গীত। অথবা ভাইস-ভার্সা। এছাড়াও – দেশ, তিলক-কামোদ, বৃন্দাবনি সারং, ঝিন্ঝটি, গারা, কাফি, খাম্বাজ – রাগগুলোও প্রায় একইভাবেই এসেছে।

পাহাড়ির রূপ- শান্ত, নির্মল। এর সুরের প্রতিটি অঙ্গে আছে – প্রেম, শান্তি আর বেদনা- রস (এবং Peace, power, pathos, poignancy )। রসিক হিসেবে আপনি যখন শুনবেন এই সুর, আপনার মনের তখনকার অবস্থার উপরে একটি বা একাধিক রস ধরা দেবে।

জনপ্রিয় প্রতিটি লোকসঙ্গীতের ধারাতেই প্লেব্যাক হয়েছে। প্রতিটি রাগেও প্লেব্যাক হয়েছে। তবে পাহাড়ি সাধারণ লোকসঙ্গীত ধুনে এবং পাহাড়ি রাগে ভারতে তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি প্লেব্যাক হয়েছে।

নজরুল সঙ্গীতে পাহাড়ি:

পুরো পাহাড়ি রাগে নজরুলের খুব বেশি গান নেই। তিনি স্বভাবসুলভ কারণে পাহাড়ির সাথে কিছু অন্য রাগ মিশিয়ে যুক্ত রাগের কিছু কম্পোজিশন করেছেন।

১. ও কালো বউ জল আনিতে যেয়ো না (রাগঃ পাহাড়ি, তালঃ কাহার্‌বা)

২.

 

রবীন্দ্রসঙ্গীত:
কবিগুরু তার অনেক কম্পোজিশনে প্রচলিত রাগের আশ্রয় নিলেও অনেক সময় রাগের কাঠামোতে তিনি আটকে থাকতে চাননি। তাঁর সুরের পথ রাগের বাইরে চলে গেছে প্রায়শই। আমার কাঁচা কান যা বলে, তাতে বিশুদ্ধ রাগাশ্রয়ী গান হিসেবে তাঁর গান অনেক ক্ষেত্রেই খুব ভালো উদাহরণ নয়।
১.

 

গজল:
১.

আধুনিক গান:
১.

ফিল্মের গান:
১.

নাট্যসঙ্গীত
১.

ঠুমরি
১. কৌশিকী চক্রবর্তী গেয়েছেন – Aab to aao sajna

 

যন্ত্রে পাহাড়ি:

বিভিন্ন শিল্পী বিভিন্ন যন্ত্রে বাজিয়েছেন এ রাগ। তার কিছু লিংক যুক্ত করলাম।

সুরবাহার:
১.

সেতার:

১. পণ্ডিত নিখিল বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেতারে পাহাড়ি

সারোদ
১.

সারেঙ্গী
১.

বাঁশি:

১. মাইহার ঘরানার পণ্ডিত হরিপ্রসাদ চৌরাসিয়ার বাঁশিতে পাহাড়ি

বেহালা
১.

এস্রাজ
১.

দিলরুবা
১.

সান্তর
১.

সাঁনাই
১.

যুগলবন্দী:
এবারে কিছু যুগলবন্দী শোনা যাক:
১.

এবার একটু সিরিয়াস গান বাজনা:
তারানা
১.
খেয়াল
১.
ধ্রুপদ/ধামার:
১.

 

রাগের শাস্ত্র /নিয়ম কানুন ও কারিগরি বিষয়:

এর আরোহণ ও অবরোহণ দেশকার বা ভূপালীর সাথে মিল আছে। এই রাগে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ষড়্জ। বাদী স্বরের বিচারে এই রাগের চলন দেশকার ও ভূপালী থেকে ভিন্নরূপ লাভ করে। দেশকার ও পাহাড়ি রা্গের চলনের মধ্যে বিলাবল অঙ্গের প্রভাব রয়েছে। এদিকে ভূপালীর চলনের সাথে কল্যাণ অঙ্গের মিল আছে। এছাড়া দেশকারে ভূপালী চেয়ে গান্ধারের প্রয়োগ কম। যে কারণে ভূপালীতে গান্ধার বাদীস্বর কিন্তু দেশকারে গান্ধার সমবাদী স্বর। পঞ্চম স্বরটি দেশকারে ভূপালীর চেয়ে বেশি ব্যবহৃত হলেও পাহাড়ি রাগের মতো অতটা প্রবল নয়। পাহাড়ির সমবাদী স্বর পঞ্চম। ভূপালীর চেয়ে দেশকার-এ পঞ্চম একটু বেশি ব্যবহৃত হয়। কিন্তু পাহাড়িতে পঞ্চম এ দুটি রাগে তার চেয়েও বেশি। পঞ্চমের এই আধিক্যের জন্য পাহাড়ির সমবাদী পঞ্চম।

এই রাগের সবচেয়ে বেশি স্বরবিস্তার হয় মন্দ্র ও মধ্য সপ্তকে। সেনী ঘরানায় আরোহণে গান্ধার ও নিষাদ বর্জিত হয়, কিন্তু অবরোহণে কোনো স্বরকেই বাদ দেওয়া হয় না। ফলে রাগটির জাতি হয়ে যায়– ঔড়ব-সম্পূর্ণ।

 

টিউটোরিয়াল:

যেকোনো রাগের স্বরের চলাফেরা বোঝার জন্য ২/৫ টি স্বর-মালিকা বা সারগম-গীত শোনা দরকার। স্বর মল্লিকার পাশাপাশি দু একটি  লক্ষণ গীত (বা ছোট খেয়াল) শুনলে সহজ হতে পারে। লক্ষণ গীত মূলত শেখানো হয় রাগের লক্ষণগুলো সহজে ধরতে। লক্ষণ গীত ছোট খেয়াল প্রায় একই কাজ করে। অনলাইনে অনেক গুলো আছে। একটু খোঁজাখুঁজি করলে পেয়ে যাবেন। স্যাম্পল হিসেবে নিচের দুটো লিংক দেয়া হল।

১. রাগ শাহানার স্বরমল্লিকা।

২. এনিসিআরটির টিউটোরিয়াল।

 

রিলেটেড রাগ:

মিয়া-কি-মালহার সম্পর্কে আরও জানার জন্য:

১. উইকি আর্টিকেল

২. অটোমেটেড ট্রান্সক্রিপশন প্রজেক্ট এর পাহাড়ি

 

 

 

সিরিজের বিভিন্ন ধরনের আর্টিকেল সূচি:

গান খেকো সিরিজ- সূচি
শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ব্যাকরণ বা শাস্ত্র সূচি
রাগ শাস্ত্র- সূচি
রাগ চোথা- সূচি
রাগের পরিবার ভিত্তিক বা অঙ্গ ভিত্তিক বিভাগ
ঠাট ভিত্তিক রাগের বিভাগ
সময় ভিত্তিক রাগের বিভাগ
ঋতু ভিত্তিক গান (ঋতুগান) এর সূচি
রস ভিত্তিক রাগের বিভাগ
উত্তর ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের রীতি/ধারা
সঙ্গীতের ঘরানা- সূচি
সুরচিকিৎসা- সূচি
শিল্পী- সূচি
প্রিয় গানের বানী/কালাম/বান্দিশ- সূচি
গানের টুকরো গল্প বিভাগ

Declaimer:

শিল্পীদের নাম উল্লেখের ক্ষেত্রে আগে জ্যৈষ্ঠ-কনিষ্ঠ বা অন্য কোন ধরনের ক্রম অনুসরণ করা হয়নি। শিল্পীদের সেরা রেকর্ডটি নয়, বরং ইউটিউবে যেটি খুঁজে পাওয়া গেছে সেই ট্রাকটি যুক্ত করা হল। লেখায় উল্লেখিত বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত যেসব সোর্স থেকে সংগৃহীত সেগুলোর রেফারেন্স ব্লগের বিভিন্ন যায়গায় দেয়া আছে। শোনার/পড়ার সোর্সের কারণে তথ্যের কিছু ভিন্নতা থাকতে পারে। আর টাইপ করার ভুল হয়ত কিছু আছে। পাঠক এসব বিষয়ে উল্লেখে করে সাহায্য করলে কৃতজ্ঞ থাকবো।

*** এই আর্টিকেলটির উন্নয়ন কাজ চলমান ……। আবারো আসার আমন্ত্রণ রইলো।

Read Previous

রাগ মিয়া-কি-মালহার, মিয়া-মল্লার

Read Next

রাগ শাহানা