জয়পুর-আত্রাউলি ঘরানা

জয়পুর-আত্রাউলি ঘরানার সাথে আমাকে পরিচয় করিয়েছিলেন আনিস মাহমুদ (আমার শ্রোতা যাত্রার অন্যতম গুরু)। কৃতজ্ঞতা জানাই আমাকে এই গায়কীর সাথে এভাবে পরিচয় করাবার জন্য।

প্রথম যখন জয়পুর-আত্রউলি ঘরানার প্রতিষ্ঠাতা আল্লাদিয়া খাঁ সাহেব (১৮৫৫-১৯৪৬) সম্পর্কে শুনেছি/পড়েছি, ভীষণ রাগ হয়েছিল লোকটার উপর।
অহমিকায় ভরপুর, চরম উন্নাসিক, নির্দয় একজন লোক।
দুই পয়সার আম জনতা তার গায়কী শুনবে, এই উন্নাসিকতায় কোনদিন রেকর্ডই করলেন না।
ছেলে যখন অকালে মারা যায়, তখন শুধু বিলাপ করছিলেন – মাঞ্জীর সাথে আমার ঘরের ২ শো বছরের গায়কী চলে গেল! যেন ছেলের দুঃখের চেয়ে বড় দুঃখ তার ঘরানার গায়কীর !!

গানের কিছু বোঝার যোগ্যতা আমার নাই।
তার পরেও – যখন তার সৃষ্টিগুলো শোনা শুরু করলাম, তখন মনে হতে লাগলো – পৃথিবীতে এরকম কিছু লোক জন্মায়, যাদের এরকম অহংকারী হওয়াও বেশি মানিয়ে যায়।

এই ঘরানার গান আমি সবচেয়ে বেশি শুনেছি পণ্ডিত মল্লিকার্জুন মনসুর এর কণ্ঠে। এরপর কেসরবাই কেরকার, মঘুবাই কুর্দিকার, গজননরাও জোশী, লক্ষীবাই যাদব, ধন্দুতাই কুলকার্নী, উমানরাও সাদোলিকার, কিশোরি আমনকার, রাজশেখর মনসুর সহ অনেকের গানই শুনেছি। শিল্পী বড়-ছোট বিচারে বলছি না, এই ঘরানার গান শুনতে আমার এখনও প্রথম পছন্দ পণ্ডিত মল্লিকার্জুন মনসুর। অসম্ভব মিহি গলায় আরামে গেয়ে যেতেন তিনি। উঁচু-নিচু প্রায় অসম্ভব তানগুলো এমন করে গাইতেন, যেন আনমনে ফুলের নক্সা করছেন। বড় আসরে, জটিল তান করার মাঝে, শাগরেদদের সুর ধরতে বলে উঠে গিয়ে, নিশ্চিন্তে দুটো বিড়ি ফুঁকে আসতেন, নিজের মনে গুনগুন করে কি যেন গেয়ে আসতেন। অনেকেই বলেছেন লিজেন্ডারি ওস্তাদ আল্লাদিয়া খাঁ সাহেবের ঘরের গর্বের অর্জুন, সম্ভবত রেকর্ড জামানায় তার ঘরের সবচেয়ে বড় গাইয়ে হিসেবে। ওনার পরে আমার পছন্দ কিশোরী আমনকার।

 

এই ঘরানা বিষয়ে সারিতা পাঠক এর বর্ণনা:

 

 

সঙ্গীতের ঘরানা- সূচি

সঙ্গীতে ঘরানা কি বা কিভাবে তৈরি হয়?

ঘরানা সংস্কৃতি ও গুরু শিষ্য পরম্পরা

সঙ্গীতে ঘরানার মধ্যে পার্থক্যে কোথায়?

জয়পুর-আত্রাউলি ঘরানা

সূচি:

গান খেকো সূচি
সঙ্গীতের ব্যাকরণ সূচি
রাগ শাস্ত্র সূচি
রাগ চোথা সূচি
পরিবার ভিত্তিক/রাগ অঙ্গ ভিত্তিক রাগের গ্রুপ
ঠাট ভিত্তিক রাগের গ্রুপ
সময় ভিত্তিক রাগের গ্রুপ
ঋতু ভিত্তিক রাগ/গান সূচি
রস ভিত্তিক গ্রুপ
ঘরানা ভিত্তিক গান বাজনা
শিল্পী সূচি
প্রিয় গানের বানী/কালাম/বান্দিশ সূচি

 

Declaimer:

শিল্পীদের নাম উল্লেখের ক্ষেত্রে আগে জ্যৈষ্ঠ-কনিষ্ঠ বা অন্য কোন ধরনের ক্রম অনুসরণ করা হয়নি। শিল্পীদের সেরা রেকর্ডটি নয়, বরং ইউটিউবে যেটি খুঁজে পাওয়া গেছে সেই ট্রাকটি যুক্ত করা হল। লেখায় উল্লেখিত বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত যেসব সোর্স থেকে সংগৃহীত সেগুলোর রেফারেন্স ব্লগের বিভিন্ন যায়গায় দেয়া আছে। শোনার/পড়ার সোর্সের কারণে তথ্যের কিছু ভিন্নতা থাকতে পারে। আর টাইপ করার ভুল হয়ত কিছু আছে। পাঠক এসব বিষয়ে উল্লেখে করে সাহায্য করলে কৃতজ্ঞ থাকবো।

*** এই আর্টিকেলটির উন্নয়ন কাজ চলমান ……। আবারো আসার আমন্ত্রণ রইলো।

Read Previous

রাগ বাগেশ্রী

Read Next

রাগ দীপক